দিনাজপুরে মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনির উত্তোলন কাজ শিগগিরই

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০১৭, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সাময়িক কর্মবিরতির পর দিনাজপুর মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনিতে কাজে যোগ দিয়েছেন শ্রমিক-কর্মচারীরা। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জার্মানিয়া ট্রাস্ট কনসোর্টিয়াম খনির দ্বিতীয় শিফটের উন্নয়ন কাজ শুরু করেছে।
মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাহমুদ খান জানান, পাথর উত্তোলন সাময়িক বিরতির পর শনিবার সকাল ৬টা থেকে কাজে যোগ দিয়েছেন শ্রমিক-কর্মচারীরা। পাথর উত্তোলনের কাজ দ্রুত করার লক্ষে দ্বিতীয় শিফটে খনির উন্নয়ন কাজ শুরু করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জার্মানিয়া ট্রাস্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি)। উন্নয়ন কাজ প্রায় ৭০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ১০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ভূগর্ভস্থল থেকে পাথর উত্তোলনের উন্নয়ন কাজ শেষ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এরপর থেকেই পুরোদমে পাথর উত্তোলন শুরু করা হবে।
মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জিটিসির একটি সূত্রে জানা গেছে, মধ্যপাড়া পাথর খনির উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে খনির ভূগর্ভে নতুন স্টোপ (শিলা উৎপাদন ইউনিট) নির্মাণসহ খনির উন্নয়নে বিভিন্ন দেশ থেকে অত্যাধুনিক মেশিনারিজ ও যন্ত্রাংশ আমদানি করা হয়েছে। এসব মেশিনারিজ ও যন্ত্রাংশ সংগ্রহ এবং আমদানি প্রক্রিয়ায় সময় ক্ষেপণ হওয়ায় খনির উন্নয়ন কাজে বিঘœ ঘটে। ফলে গত কয়েক মাসে খনির কার্যক্রম চালাতে জিটিসিকে লোকসান গুণতে হয় কোটি কোটি টাকা। ইতোমধ্যে প্রায় সকল মেশিনপত্র ও যন্ত্রাংশ খনিতে এসে পৌঁছেছে। খনি থেকে পাথর উত্তোলনের জন্য উন্নয়ন কাজ অতি অল্প সময়ে শেষ করার লক্ষ্যে ২ শিফটে কাজ শুরু করা হয়েছে খনির ভূগর্ভে।
মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনির ব্যবস্থাপক আরএস রায়হান জানান, খনি এলাকায় কর্মরত বিদেশি খনি বিশেষজ্ঞ দল দিনে রাতে আধুনিক মেশিনপত্র ভূগর্ভস্থে স্থাপনের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। পুরো উৎপাদন কার্যক্রম শুরু হলে পর্যায়ক্রমে খনিতে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে আসবে। এতে সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব অর্জনে সক্ষম হবে।- বাসস