দিনাজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত আহত ২৫

আপডেট: জুলাই ২, ২০১৭, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ

দিনাজপুর প্রতিনিধি


দিনাজপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত ও ২৫ জন আহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার বেলা ১২টার দিকে দিনাজপুর-রংপুর সড়কের সাত মাইল এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত কুমোদ চন্দ্র রায় (৩৫) দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার তালপুকুর গ্রামের নোগেন চন্দ্র রায়ের ছেলে। তিনি দিনাজপুর শহরের মধ্যবালুবাড়ির বাসায় থাকতেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, রংপুর থেকে দিনাজপুরগামী এএইচ এন্টারপ্রাইজের একটি যাত্রীবাহী বাস বেলা ১২টার দিকে দিনাজপুর-রংপুর সড়কের সাতমাইল এলাকায় পৌঁছলে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে একটি গাছের সাথে ধাক্কা লেগে বাসটি উল্টে খাদে পড়ে যায়। এতে অন্তত ২৬ জনযাত্রী আহত হয়। স্থানীয়রা আহত যাত্রীদের উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আবদুুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালে ভর্তির পর কুমোদ চন্দ্ররায় মারা যান। তিনি নীলফামারী সদর উপজেলার দরোয়ানী কলেজের প্রভাষক ছিলেন। গুরুতর আহতরা হলেন তাসনিয়া (৫মাস), জিয়াউল হক (৩৭), সাজেদুর রহমান (৩৮), শাহজাহান (৪০), মাহফুজা বেগম (২৮), সুফিয়া (১২), সুমন (২৪), মোনায়েম (৪৪), সাজু (২২), রঞ্জু (৩০), আব্দুর রহমান (৩২), রশিদা বেগম (৩৭), মিজানুর রহমান (২৫), শাহাবুদ্দিন (৩৮), হাসেম (২৩), সঞ্জিত রায় (২৫)। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেছেন।
এদিকে গত শুক্রবার রাতে দিনাজপুর বিরল উপজেলার কানাইবাড়ী এলাকার দিলীপ চন্দ্র রায়ের ছেলে ও পাবনার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র দীপ্ত রায় (২১) মোটরসাইকেল যোগে বোচাগঞ্জে আত্মীয়ের বাড়ি যাওয়ার পথে ধুকুরঝাড়ী এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় গুরুতর আহত হয়। স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আবদুুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মৃত্যুবরণ করেন।
অপরদিকে ওই দিন রাতে একই উপজেলার দিনাজপুর-বোচাগঞ্জ সড়কে দলিল মুদিখানা মোড় এলকায় ট্রাক্টরের ধাক্কায় নিহত হয় ৫ বছরের শিশু মাসুম। সে তেঘরা মহেষপুর গ্রামের সুজন আলীর ছেলে।
গতকাল শনিবার সকালে নিহত দীপ্ত রায়ের মরদেহ দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় পৃথক ৩টি ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ