দিনে একবার নমাজ, সিদ্ধান্ত কেরলে

আপডেট: জুন ১৬, ২০১৭, ১:০৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ধর্মীয় প্রথার বাইরে গিয়ে দিনে একবার নমাজ পড়ার সিদ্ধান্ত নিল কেরলের মালাপ্পুরম জেলার ১৮টি মসজিদ। রোববার থেকে সেখানে এই ব্যবস্থা চালু হয়েছে। ভাজাক্কাড় এলাকার সবচেয়ে বড় বালিয়া জামা মসজিদ প্রথমে দিনে একবার নমাজ পড়ার সিদ্ধান্ত নেয়। পরে এলাকার অন্য ছোট সব মসজিদই আলোচনা করে দিনে একবার নমাজ পড়ার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছে। মসজিদগুলির এই সিদ্ধান্তে খুশি এলাকার মানুষ।
ভাজাক্কাড় মসজিদ কমিটির প্রেসিডেন্ট টিপি আবদুল আজিজ বলেছেন, ‘ভাজাক্কাড় এলাকায় সাতটি মসজিদ রয়েছে। কয়েক কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে আরও খান দশেক মসজিদ। দিনে বিভিন্ন সময়ে আজান দেয়ার ফলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সাধারণ মানুষের অসুবিধা আমাদের নজরে এসেছে।’ আলোচনার পরে সুন্নি, সালাফি, জামাত-এ-ইসলাম এবং তবলিগ জামাতের প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সদস্যরা শব্দ দূষণ খতিয়ে দেখে দিনে একবার নমাজ পড়ার সিদ্ধান্ত নেন। সব মসজিদে যাতে একই সময়ে নমাজ পড়া হয় তা দেখতে পাঁচ সদস্যের আরও একটি কমিটি গঠন করা হয়। মসজিদগুলির আরও সিদ্ধান্ত, বালিয়া জুমা মসজিদ থেকে দিনে একবার নমাজ পড়া হবে। অন্য মসজিদও তা অনুসরণ করবে। নমাজের সময় লাউড স্পিকার ব্যবহার করা হবে না। স্থানীয় বাসিন্দা, পেশায় ব্যবসায়ী মহম্মদ কোয়া জানিয়েছেন, ‘বালিয়া জুমা মসজিদ একটি উদাহরণ তৈরি করেছে। উদ্দেশ্যহীনভাবে কানের পোকা খাওয়া স্পিকার বন্ধ হবে। এবার রাজনৈতিক দলগুলিও এই পথ নেবে বলে আশা করি।’
দধ্যসূত্র: আজকাল