দিলীপ কুমারের মৃত্যুর গুজবে বিরক্ত পরিবার

আপডেট: জুন ৭, ২০২১, ১:১৭ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমার। শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে মুম্বাইয়ের পি ডি হিন্দুজা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিনি।
রোববার (০৬ জুন) সকালে হাসপাতালে ভর্তি হাওয়ার পর ছড়িয়ে পড়েছে দিলীপ কুমারের মৃত্যুর গুজব। এই খবরটি মুহূর্তের মধ্যেই সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।
তবে এমন মিথ্যা সংবাদ ছড়িয়ে পড়ায় বিরক্তি প্রকাশ করেছে অভিনেতার পরিবার। দিলীপ কুমারের আইডি থেকে টুইট করে জানানো হয়, তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।
পরিবারের পক্ষ থেকে টুইটে লেখা হয়, ‘হোয়াটসঅ্যাপ বা সামাজিক মাধ্যম গুজব বিশ্বাস করবেন না। দিলীপ সাহেব স্থিতিশীল রয়েছেন। আপনাদের প্রার্থনা এবং দোয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে তিনি বাড়িতে ফিরতে পারবেন। ইনশাআল্লাহ। ’
প্রায়ই অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা দিলীপ কুমারকে। সুস্থ হয় বাড়িতেও ফেরেন তিনি। কিন্তু সম্প্রতি ৯৮ বছর বয়সী এই তারকা শ্বাসকষ্টে ভোগার কারণে আবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
বয়সের কারণে বার্ধক্যজনিত নানা শারীরিক সমস্যা রয়েছে দিলীপ কুমারের। মে মাসের শুরুতে তাকে দীর্ঘ সময় হাসপাতালে থেকে চিকিৎসা নিতে হয়েছিল। এখন আবারও হাসপাতালে ভর্তি হলেন তিনি।
দিলীপ কুমারের জন্ম ১৯২২ সালের ১১ ডিসেম্বর। তার প্রকৃত নাম মোহাম্মদ ইউসুফ খান। রূপালি পর্দায় ক্যারিয়ার শুরুর সময় নাম পাল্টান তিনি। ছয় দশকের অভিনয় জীবনে ‘মধুমতি’, ‘দেবদাস’, ‘মুঘল-এ-আজম’, ‘গঙ্গা যমুনা’, ‘রাম অউর শ্যাম’, ‘কর্ম’র মতো অসংখ্য ধ্রুপদী সিনেমায় দেখা গেছে তাকে। দিলীপ কুমারকে বলা হয় বড়পর্দার ‘ট্র্যাজেডি কিং’। তাকে এই তকমা এনে দিয়েছে ‘আন্দাজ’, ‘বাবুল’, ‘মেলা’, ‘দিদার’, ‘যোগান’সহ বেশকিছু সিনেমা। সর্বশেষ ১৯৯৮ সালে ‘কিলা’ সিনেমাতে অভিনয় করেন তিনি।
ভারত সরকারের কাছ থেকে ‘পদ্মবিভূষণ’ খেতাব পেয়েছেন দিলীপ কুমার। ১৯৯১ সালে তাকে দেওয়া হয় ‘পদ্মভূষণ’। এর তিন বছর পর তিনি পান দাদাসাহেব ফালকে অ্যাওয়ার্ডও।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ