দুই শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের মৌখিক ঘোষণা দিলেন রাবি প্রক্টর

আপডেট: নভেম্বর ১৮, ২০১৯, ১:০৭ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ফাইন্যান্স বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় জড়িত দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার বিষয়টি মুখে ঘোষণা করলেন প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান। গতকাল রোববার বেলা ১২ টায় মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্রলীগ কর্মীদের স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে বিশ^বিদ্যালয়ের সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি পালনকালে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আনতে বহিষ্কারের ঘোষণা দেন তিনি।
তবে বহিষ্কারের বিষয়টি প্রক্টর লুৎফর রহমান কোনো ধরনের লিখিত ডুকুমেন্ট ছাড়াই মুখে ঘোষণা দেন। পরে এ বহিষ্কার আদেশের লিখিত ডকুমেন্ট চাইলে কোনো ধরনের ডকুমেন্ট দেয়নি বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন।
ডকুমেন্ট না থাকার বিষয়ে প্রক্টর বলেন, ‘অভিযুক্ত ওই দুই শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এটা পাস হয়ে গেছে, এর লিখিত ডকুমেন্টের আর প্রয়োজন নেই।’
স্থায়ী বহিষ্কারের বিষয়ে প্রক্টর বলেন, ‘স্থায়ী বহিষ্কারের জন্য কিছু পর্যায় রয়েছে যেগুলো অতিক্রম না করা পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্তে আসা সম্ভব নয়। এ বিষয়ে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ তদন্তের রিপোর্ট পাবার পর স্থায়ী বহিষ্কারের বিষয় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’
এর আগে গত শনিবার দুপুরে শৃঙ্খলা কমিটির এক জরুরি সভায় ওই দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান।
বহিষ্কৃতরা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রাকিবুল ইসলাম ও বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের হুমায়ন কবির নাহিদ।
এদিকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘোষণা দেয়া মাত্রই শিক্ষার্থীদের মধ্যে উত্তেজনা আরও বৃদ্ধির পায়। অভিযুক্ত ওই দুই শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কারের জন্য ৭দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘সাত দিনের মধ্যে যদি তাদের স্থায়ী বহিষ্কার না করা হয় তাহলে তারা কঠোর আন্দোলনে নামবে তারা।’