দুনীর্তি করবো না, কাউকে করতেও দেবোনা : পাবিপ্রবির উপাচার্য

আপডেট: জুন ২৯, ২০২২, ২:১৬ অপরাহ্ণ


পাবনা প্রতিনিধি :


পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন বলেছেন, আমরা কোন দুনীর্তি করবো না,কাউকে করতেও দেবোনা। তিনি বলেন, সাংবাদিকরা হলেন, আমাদের কাজকর্মের পর্যবেক্ষক। তাদের সমালোচনা ও লেখনি আমাদের পথ দেখাবে, আরও সমৃদ্ধ করবে।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) দুপুরে পাবনার সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। উপাচার্যের দপ্তরে সাংবাদিকদের সাথে উপাচার্য ড. হাফিজা খাতুনও উপ-উপাচর্য অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল খান মতবিনিমিয় করেন।

উপাচর্য আরও বলেন, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়ার কাজ পুরোদমে চলছে। আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের নাগরিক করার চেষ্টা করছি। আমরা পুরাতন, অমঙ্গলকর সবকিছু বদলে একটি নতুন মানসম্মত বিশ্ববিদ্যালয় গড়ার কাজ করছি।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন বলেন, আমাদের স্বপ্ন বড়, আমরা ভালো কাজ করতে চাই। ভালো কাজের আনন্দ খুবই তৃপ্তির। রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ পাবনার পরিবেশ ও প্রতিবেশের সাথে মিল রেখে নতুন বিভাগ খোলা হবে।

আমরা দুইমাস আগে যোগদান করেই শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রাণ চাঞ্চল্য সৃষ্টি করতে পেরেছি। তাদের মনোবল, শক্তি ফিরিয়ে এনেছি। তাদের মধ্যে স্বপ্নের বীজ বুনতে সক্ষম হয়েছি।

এ সময় বক্তব্য রাখেন, পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ, পাবনা সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি আব্দুল মতিন খান, পাবনা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি মীর্জা আজাদ, সহসভাপতি শহিদুর রহমান শহীদ,

দৈনিক বিবৃতির সম্পাদক ইয়াছিন আলী মৃধা রতন, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও ইত্তেফাক প্রতিনিধি রুমী খোন্দকার, যুগান্তরের পাবনা প্রতিনিধি আখতারুজ্জামান আখতার, দৈনিক জনকন্ঠের কৃঞ্চ ভৌমিক, দি ডেইলি স্টারের আহমেদ হুমায়ূন কবির তপু, পাবনা রির্পোটার্স ইউনিটির সাবেক সভাপতি রাজিউর রহমান রুমি,

একাত্তর টেলিভিশনের মোস্তাফিজুর রহমান রাসেল, এটিএন নিউজ প্রতিনিধি রিজভী রাইসুল ইসলাম জয়, নিউ এজ প্রতিনিধি মাহফুজ আলম, আজকের ইতিহাস পত্রিকার সম্পাদক আবু হাসনা মুহম্মদ আইয়ুব প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার বিজন কুমার ব্রক্ষ্ণ, প্রক্টর কামাল হোসেন, জনসংযোগ বিভাগের উপ-পরিচালক ফারুক হোসেন চৌধুরী সহ শিক্ষক কর্মকর্তা।
উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল খান বলেন, সাংবাদিকরা সমাজ বিনির্মানের কারিগর। এই বিশ্ববিদ্যালয় আপনাদের ভালোবাসার প্রতিষ্ঠান। বিশ্বমানের প্রতিষ্ঠান গড়ার লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। নানা পথ নানা মত থাকবে বিশ্ববিদ্যালয়ে।

কিন্তু আমরা সবাইকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যাবো। আমাদের সীমাবদ্ধতা থাকলেও লক্ষ্যে পৌছানো অসম্ভব নয়। অবাধ তথ্য প্রবাহের যুগে আমরা দেশের সেবা করতে চাই। সকল তথ্য দিয়ে সাংবাদিকদের সাহায্য করতে চাই। যাতে আমাদের কাজের স্বচ্ছতা থাকে। জাতি জানতে পারে আমরা কী করছি।

প্রসঙ্গত, গত ১২ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক বিশিষ্ট পরিবেশ বিশেষজ্ঞ ড. হাফিজা খাতুন উপাচার্য হিসেবে এবং ১৩ এপ্রিল নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এস.এম মোস্তফা কামাল খান উপ-উপাচার্য হিসেবে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ লাভ করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ