দুর্গাপুরে আ’লীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা

আপডেট: অক্টোবর ১০, ২০১৯, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ

দুর্গাপুর প্রতিনিধি


রাজশাহী দুর্গাপুরে সাবেক ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা আজগর আলীকে (৫৫) কিল-ঘুষি মেরে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে আবুল হোসেন বাদি হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। আজগর উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।
গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার কাশিমপুর গ্রামে এ ঘটে। ওই ঘটনায় বুধবার সকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পুঠিয়া (সার্কেল) আবুল কালাম শাহিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এদিকে থানা পুলিশ রাতেই লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কাশিমপুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের আজগর আলীর সঙ্গে একই এলাকার সান্টু মোল্লার জমিজামাকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ দিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছিলো। কয়েক দিনের উপর বর্ষণের কারণে সান্টু মোল্লার একটি আমগাছ আজগর আলীর পুকুরের উপর হেলে পড়ে। ওই ঘটনার জের ধরে মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে সান্টু, তায়েজ, সবুজসহ আরো কয়েকজন মিলে আজগর আলীর বাড়ি উঠানে এসে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করতে থাকে।
এসময় আজগর আলী বাড়ির মধ্যে থেকে বাইরে বেরিয়ে আসে এবং তাদের গালমন্দ করতে নিষেধ করেন। তারা কোনো কথা না শুনে সান্টুসহ কয়েকজন মিলে আজগরকে টেনে হেঁচড়ে বাড়ির পূর্বপাশের একটি আমবাগানে নিয়ে কিলঘুষি মারতে থাকে। এতে আজগর জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তারা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
খবর পেয়ে থানার পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।
দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) খুরশীদা বানু কণা জানান, নিহতের ছেলে আবুল হাসেম থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ওই ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে। আসামীরা পলাতক থাকায় কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে বুধবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ