দুর্গাপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

আপডেট: মে ২৭, ২০২১, ৯:১৩ অপরাহ্ণ

দুর্গাপুর প্রতিনিধি:


রাজশাহী দুর্গাপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক গৃহবধূ। ওই গৃহবধূর নাম সোনিয়া খাতুন (২৩)। বুধবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় উপজেলা পালশা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (২৭মে) পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুর্গাপুর উপজেলার কিশোরপুর গ্রামের আবুল হোসের মেয়ে সোনিয়া খাতুনের সাথে গত দেড় বছর আগে একই উপজেলার পালশা গ্রামের কালামের ছেলে রতেন আলীর সাথে বিয়ে হয়। সম্পর্কে তারা খালাতো ভাই-বোন ছিলেন। বিয়ের এক বছর যেতে না যেতেই তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। এক পর্যায়ে সোনিয়া খাতুন (২৬ মে) বুধবার সন্ধ্যায় সবার অগোচরে ঘরের তীরের সাথে রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।
পরে পরিবারের লোকজন জানতে পেরে স্থানীয়দের মাধ্যমে থানা পুলিশকে খবর দেন। থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার ওই গৃহবধূর মরদেহটি উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেন। এবিষয়ে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাশমত আলী জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা যাচ্ছে সোনিয়া গলায় ফাঁস দিয়েই আত্মহত্যা করেছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে সোনিয়ার মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।