দুর্গাপুরে নকল কসমেটিকস প্রসাধনী কারখানায় পুলিশের অভিযান আটক এক, বিপুল নকল প্রসাধনী উদ্ধার

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১, ১০:০৩ অপরাহ্ণ

দুর্গাপুর প্রতিনিধি:


রাজশাহীর দুর্গাপুরে নকল কসমেটিকস প্রসাধনী সামগ্রী তৈরীর কারখানায় অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। অভিযানকালে প্রসাধনী তৈরীর কারখানার মালিক সালমা বেগম নামের এক নারিকে গ্রেপ্তার করা কওে পুলিশ।

রোববার রাতে উপজেলার চৌপুকুরিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে এসব মালামাল উদ্ধার করা হয়। দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাশমত আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুর্গাপুর থানা পুলিশ উপজেলার চৌপুকুরিয়া পুর্বপাড়া গ্রামের তইজাল আলীর বাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানকালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তইজান তার সহযোগী ইমান আলী, মমিনুল ইসলাম ও মিঠুনসহ তারা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এসময় অপর সহযোগীতইজানের স্ত্রী সালমা বেগম (৩৮) পুলিশের জালে আটকা পড়ে যায়। পরে ওই কারখানায় তল্লাশী চালিয়ে বিপুল পরিমান ভেজাল কসমেটিকস প্রসাধনী সামগ্রী তৈরিতে ব্যবহৃত মালামাল উদ্ধার করা হয়।

ওসি আরো জানান, তারা বেশ কিছুদিন থেকে লতা হারবাল নামে একটি কোম্পানির পণ্যের নাম ব্যবহার করে নকল কসমেটিকস প্রসাধনী তৈরি ও বাজারজাত করে আসছিলো। উদ্ধারকৃত প্রসাধনী হল দুইটি সাদা প্লাস্টিকের বস্তায় রক্ষিত LATA HARBAL SKIN BRIGHT CREAM লেখা কাগজের তৈরি খালি পেকেট। একটি স্টিলের তৈরি ড্রাম। একটি লোহার তৈরি মেশিন। একটি ইলেক্ট্রিক ভাইব্রেশন মেশিন। একটি ইলেক্ট্রিক HEATGUN, একটি প্লাস্টিকের বড় ব্যাগের মধ্যে রক্ষিতLATA HARBAL SKIN BRIGHT CREAM ছোট বড় লেবেল, দুইটি কন্টিনারে রক্ষিত সাদা রংয়ের ১৬ কেজি ভেজাল প্রসাধনী সামগ্রী তৈরিতে ব্যবহৃত পেস্ট, ভেজাল ক্রিম তৈরিতে ব্যবহৃত অফ হোয়াইট রংয়ের ৩০ কেজি পেস্ট, অফ হোয়াইট রংয়ের ১০ কেজি পেস্টসহ সর্ব মোট চার লক্ষ আটত্রিশ হাজার টাকার মালামাল উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় আটক সালমা বেগমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পালাতক আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান ওসি।