দুর্গাপুরে লগডাউনের তৃতীয় দিনেও মাঠে নেই প্রশাসনের কর্মকর্তারা

আপডেট: এপ্রিল ১৬, ২০২১, ১২:৪৭ অপরাহ্ণ

দুর্গাপুর(রাজশাহী) প্রতিনিধি:


করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মারাত্মকভাবে বেড়ে যাওয়ায় দ্বিতীয় বারের মতো সাধারণ ছুটিসহ আবারো এক সপ্তাহের জন্য ‘কঠোর লকডাউন; ঘোষণা করেছে সরকার। ১৪ এপ্রিল বুধবার ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে নির্দেশ দেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এমন নির্দেশনার পরও দুর্গাপুরে কঠোর লগডাউনের তৃতীয় দিনেও মাঠে দেখা মিলেনি উপজেলা প্রশাসনের কোনো কর্মকর্তার। অনেকটাই স্বাভাবিকভাবেই চলছে উপজেলার হাট-বাজার, দোকান-পাট আর মোড়ে মোড়ে চলছে চায়ের আড্ডা। সরকারের দেওয়া কঠোর লগডাউনের নির্দেশনার কোনো প্রচার প্রচারনা না থাকায় বেপরোয়া ভাবে লোকসমাগম দেখা যাচ্ছে। এমনকি হাট-বাজার ও চায়ের দোকানে মাস্ক ব্যবহারও করছেন না কেউ। উপজেলার প্রশাসনের কোনো পদক্ষেপ না থাকায় বাস্তবায়ন হচ্ছে না কঠোর লগডাউন।
শুধু মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ (মাঠ প্রশাসন সমম্বয় অধিশাখা) হতে পাঠানো দুইটি চিঠি ও বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় হতে একটি চিঠি সোস্যাল মিডিয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ফেজবুক আইডির মাধ্যমে প্রচারনা করতে দেখা যায়। সরকারের এমন গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ শুধু সোস্যাল মিডিয়াতেই সীমাবদ্ধ রয়েছে।
এদিকে দুর্গাপুর থানা পুলিশের পক্ষ থেকে বাজারের দু‘একটি মোড়ে হ্যান্ড মাইকের মাধ্যমে প্রচারনা লক্ষ করা যায়। কিন্তু থানার দুই পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্তের পর হঠাৎ করে তাও থমকে যায়। এখন উপজেলায় কঠোর লগডাউনের পদক্ষেপ গ্রহণে মাঠ পর্যায়ে নেই কোন কার্যক্রম।
দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) হাসমত আলী জানান, পুলিশের পক্ষ থেকে কঠোর লগডাউন বাস্তবায়নের জন্য প্রচার প্রচারনা করা হচ্ছে। কিন্তু উপজেলা প্রশাসনের তেমন কোনো পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে না। এমনকি কঠোর লগডাউনের তৃতীয় দিনেও উপজেলা প্রশাসনের কোনো প্রকার প্রচার প্রচারনা- এমনকি ভ্রাম্যামান টিম মাঠে নেই।
দুর্গাপুর উপজেলার সিনিয়র সাংবাদিক মোবারক হোসেন শিশির জানান, জেলার সদরসহ অন্যান্য উপজেলার চেয়ে দুর্গাপুর উপজেলায় সরকার ঘোষিত কঠোর লগডাউন পুরোপুরি মানা হচ্ছে না। উপজেলা প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে আরো প্রচার প্রচারনা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন বলে আমি মনে করি।
দুর্গাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলামের মোবাইল ফোনে কয়েকবার কল করা হলে তা রিসিভ না করায় কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহসীন মৃধা জানান, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর লগডাউন বাস্তবায়নের জন্য সকল প্রকার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ওযার্ড পর্যায়ের মেম্বারকে সভাপতি করে কমিটি করা হয়েছে। প্রতিনিয়িত খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। এখনো ভালো রয়েছে।