দুর্গাপুরে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী কারাগারে

আপডেট: মে ৩, ২০১৭, ১:২৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার বখতিয়ারপুর গ্রামে প্রিয়া খাতুন (২০) নামের এক গৃহবধূকে বিষ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গত রোববার রাতের এ ঘটনায় শাশুড়ি বাদি হয়ে থানায় হত্যামামলা দায়ের করা হলে গৃহবধূ প্রিয়ার স্বামীকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।
মামলার বাদি প্রিয়া খাতুনের মা মালেকা বেগম জানান, উপজেলার বখতিয়ারপুর গ্রামে আবুল কালাম আজাদের সাথে তার স্ত্রী প্রিয়া খাতুনের গত রোববার সন্ধ্যায় পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়াঝাটি হয়। এরপর রাতে খাবারের সাথে গন্ধবিহীন (ফুরাডান) বিষ মিশিয়ে সেই খাবার প্রিয়াকে খাওয়ানো হয়। খাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই বিষক্রিয়ায় প্রিয়া খাতুন ছটফট শুরু করলে জামাই আজাদ প্রিয়াকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার জন্য বের হয়। কিন্তু পাঁচুবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে যেতেই প্রিয়া মারা যায়। এ সময় প্রিয়ার মরদেহ ফেলে রেখে পালিয়ে যায় জামাই আজাদ। এ ঘটনায় তার সন্দেহ হলে ওইদিন রাতেই বাদি হয়ে মেয়েকে হত্যার অভিযোগ এনে থানায় মামলা দায়ের করেন।
দুর্গাপুর থানার এস.আই মনিরুজ্জামান মনির জানান, আজাদের শাশুড়ি মালেকা বেগম জয়নগর ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের সদস্য। আজাদকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। প্রিয়া খাতুনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ