দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত মওদুদ

আপডেট: জুন ২২, ২০১৭, ১:১১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ঘোষিত আয়ের বাইরে সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের মামলায় বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদের বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত।
ঢাকার ৬ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ইমরুল কায়েস বুধবার দুদকের এ মামলায় অভিযোগ গঠন করে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরুর জন্য ২৬ জুলাই দিন ঠিক করে দেন।
এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের ক্ষেত্রে আইনের ‘যথাযথ প্রক্রিয়া’ অনুসরণ করা হয়নি অভিযোগ করে অনাস্থা জানিয়েছেন তার আইনজীবীরা।
আইনজীবী তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, অভিযোগ গঠনের সময় আদালতে উপস্থিত মওদুদ আহমদকে অভিযোগ পড়ে শোনাননি বিচারক।
“বিচারক আসামিকে জিজ্ঞাসা করেননি- তিনি দোষী না নির্দোষ। নিজেকে নির্দোষ দাবি করার সুযোগ তাকে দেওয়া হয়নি। যে কারণে এই আদালতে আমরা ন্যায়বিচার পাব না বলে ধারণা করছি। তাই এ বিচারকের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে একটি দরখাস্ত জমা দিয়েছি।”
এই আইনজীবী বলেন, “আমরা ভেবেছিলাম অভিযোগ গঠনের শুনানি হলেও আদেশের জন্য একটি তারিখ রাখা হয়েছে। কিন্তু পরে বুঝলাম অভিযোগ গঠন করা হয়ে গেছে অভিযোগ না শুনিয়েই।”
জরুরি অবস্থার সময় ২০০৭ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর দুদকের উপ-পরিচালক শরিফুল হক সিদ্দিকী গুলশান থানায় মওদুদের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন। পরে দুদকের উপ-পরিচালক শরিফুল হক সিদ্দিকী ২০০৮ সালের ১৪ মে আদালতে অভিযোগপত্র দেন।
সেখানে বলা হয়, ২০০৭ সালের ২৩ জুলাই দুর্নীতি দমন কমিশনে জমা দেয়া সম্পদের হিসাব বিবরণীতে মোট ৪ কোটি ৪০ লাখ ৩৭ হাজার ৩৭৫ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেন চার দলীয় জোট সরকারের মন্ত্রী মওদুদ।
এছাড়া ৭ কোটি ৩৮ হাজার ২৩৭ টাকার সম্পদ তার ঘোষিত আয়ের তথ্যের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ