দুর্নীতি রোধে আসছে দুদক টিভি

আপডেট: জুলাই ১২, ২০১৭, ১:৩৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


দুর্নীতি দমন ও রোধে ইন্টারনেটভিত্তিক টেলিভিশন স্থাপন করতে যাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এটি ইন্টারনেট প্রটোকল টেলিভিশন বা আইপিটিভি হিসেবে অনুষ্ঠান সম্প্রচার করবে।
দুর্নীতি রোধে জনগণকে অধিক সচেতন করার মাধ্যমে দুর্নীতি বিরোধী গণজাগরণ সৃষ্টি করার লক্ষ্যেই দুদক এ উদ্যোগ নিয়েছে। আপাতত রেকর্ডকৃত বিভিন্ন অনুষ্ঠান এতে সম্প্রচারের ব্যবস্থা থাকবে। যেখানে ঘুষ লেনদেন রোধে বিভিন্ন ফাঁদ পাতার ঘটনা, গ্রেপ্তার এবং দুর্নীতির মামলার রায়, গণশুনানি, সংবাদ সম্মেলন, দুর্নীতি দমন ও প্রতিরোধে দুদকের নেয়া নানা কর্মসূচির বিষয় সম্প্রচার করা হবে। তবে ভবিষ্যতে এতে সরাসরি অনুষ্ঠান সম্প্রচার করার পরিকল্পনা রয়েছে।
দুদকের আইপিটিভি স্থাপনের বিষয়ে চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে কমিশনের বৈঠকে  একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। এরই মধ্যে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এ বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট কমিশনে উপস্থাপনের জন্য বলা হয়েছে।
এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে দুদকের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘গত সপ্তাহে কমিশন সভায় ইন্টারনেটভিত্তিক টেলিভিশন স্টেশন করার একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। তবে ওই টেলিভিশনের কাঠামো এখনো ঠিক হয়নি। কমিশনের বৈঠকে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের আইটি বিশেষজ্ঞ উপস্থিত ছিলেন। তিনি পূর্ণাঙ্গ টেলিভিশন চ্যানেল ও ইন্টারনেটভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল স্থাপনের ব্যয় ও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি বিষয়ে বিস্তারিত ধারণা দেন।’
ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, ‘টেলিভিশন চ্যানেল স্থাপনে আনুষঙ্গিক ব্যয়, লোকবল ও সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে কমিশন শেষ পর্যন্ত ইন্টারনেটভিত্তিক আইপিটিভি স্থাপনের পক্ষে মত দেয়। একইসঙ্গে বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানকে ওই টিভি স্থাপনে প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো সংযুক্ত করে প্রাথমিক রিপোর্ট দ্রুত সময়ের মধ্যে পেশ করতে বলে। আইপিটিভি ছাড়াও কমিউনিটি রেডিও স্থাপনের বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। তবে রেডিও স্থাপনের প্রস্তাব শেষ পর্যন্ত বাতিল হয়ে যায়।’
ইন্টারনেট প্রটোকল টেলিভিশন হলো ইন্টারনেটভিত্তিক প্রবাহমান টিভি। এটি প্রচলিত কেবল, স্যাটেলাইট বা টেরেস্ট্রিয়াল টিভির মতো নয়। এটি শুধু ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে সম্প্রচারিত হয়। যে কেউ স্মার্ট ফোন, এপ্লিকেশনযুক্ত ওয়েবসাইট, স্মার্ট ফোন, স্মার্ট টিভি, ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ কম্পিউটারের মাধ্যমে এ টিভি দেখতে পারেন। এর ফলে যে কোনো দর্শক ইন্টারনেটের সাহায্যে চাইলেই যে কোনো সময় এই টিভি দেখতে পাবেন।
এ বিষয়ে দুদক সচিব আবু মো. মোস্তফা কামাল রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমরা দুর্নীতি দমনের পাশাপাশি দুর্নীতি রোধে বেশি জোড় দিতে চাই। মূলত: দুর্নীতি রোধ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের মধ্যে অধিক সচেতনতা সৃষ্টি করতেই দুদকের অনলাইন টিভি সম্প্রচারের এ উদ্যোগ। তবে এখন পর‌্যন্ত এটি প্রাথমিক অবস্থায় রয়েছে। কমিশন সভায় শুধু নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিস্তারিত বলার মতো কিছু হয়নি। এখনো অনেক কাজ বাকি।’
দুদক সূত্রে এ বিষয়ে আরো জানা যায়, আপতত ধারণকৃত ভিডিও দুদক টিভিতে সম্প্রচারের সুবিধা থাকবে। অনলাইন টেলিভিশনের এই প্রস্তাব বাস্তবায়নের জন্য এরই মধ্যে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো সংযুক্ত করে প্রাথমিক রিপোর্ট পেশ করতে বলা হয়েছে। ওই রিপোর্ট পাওয়ার পর কমিশন থেকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে দরপত্র আহ্বান করা হবে।
সূত্র আরো জানায়, অনলাইন টেলিভিশন স্থাপনে দুদক শুধু ক্যামেরা ক্রয় করবে। একজন রিপোর্টারসহ চার থেকে পাঁচজনের নিজস্ব লোকবল কাজ করবে। এডিটিং প্যানেলের কাজ চুক্তিভিত্তিক করানো হবে। স্টুডিও এবং পরামর্শের কাজও হবে চুক্তিভিত্তিক।
অনলাইন টিভিতে যা দেখানো হবে : ফাঁদ ঘটনার ভিডিও, গ্রেপ্তারের ভিডিও, দুর্নীতি মামলার রায়, বড় বড় ইভেন্টগুলোর প্রতিবেদন, দুদকের গণশুনানি, বিভিন্ন প্রতিরোধ কার্যক্রম, সংবাদ সম্মেলন, গুরুত্বপূর্ণ সভা শেষে কমিশনের সিদ্ধান্তগুলো কিংবা দুদক চেয়ারম্যানের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাসেজ দুদক টিভিতে পাওয়া যাবে।
আইপিটিভি স্থাপনের ব্যয় : অনলাইন টিভির এই প্রস্তাব বাস্তবায়ন করতে প্রাথমিক ব্যয় ধরা হয়েছে ২৫ লাখ টাকা। এর মধ্যে রয়েছে ইন্টারনেট সার্ভার ভাড়া, ওয়েবসাইট তৈরি, ব্যান্ডউইডথ ক্রয় ও স্বল্প সংখ্যক জনবল সংশ্লিষ্ট ব্যয়।
আইপিটিভির মোবাইল অ্যাপস : দুদক সূত্র জানায়, দুদকের অনলাইন টিভি সহজলভ্য করতে টিভির মোবাইল অ্যাপস তৈরি করা হবে যা গুগল থেকে ডাউনলোড করতে হবে। এছাড়া অনলাইন টিভির লিংক গুগল প্লাস, ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার, জাগো টিভি ও লিংকবিডিসহ সকল সোশ্যাল নেটওয়ার্কে সংযুক্ত করা থাকবে। ফলে দর্শকরা সহজেই টিভি দেখতে পারবেন।
তথ্যসূত্র: রাইজিংবিডি

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ