‘দুর্বল ডিফেন্স আর ভুল বোঝাবুঝিতেই সর্বনাশ’

আপডেট: আগস্ট ২৬, ২০১৭, ১:২৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বল দখলে শ্রেষ্ঠত্ব ছিল। গোলের সুযোগও বেশি পেয়েছিল। তারপরও ম্যাচ শেষে মাথা নিচু করে মাঠ ত্যাগ করতে হয়েছে বাংলাদেশের কিশোরদের। সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে নেপাল ৪-২ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশকে। এর মধ্যে দুটি গোল স্বাগতিকদের উপহার দিয়েছে লাল-সবুজ জার্সিধারী কিশোররা। ছোটখাটো ভুল, ডিফেন্সে দুর্বলতা এবং ভুল বোঝাবুঝির কারণেই সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয়েছে গত আসরের চ্যাম্পিয়নদের।
দুই বছর আগে সিলেটে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের যে মুকুট পড়েছিল বাংলাদেশের কিশোররা তা খুলে রাখতে হলো হিমালয়ের দেশ নেপালে। অন্য সেমিফাইনলে ভারত ৩-০ গোলে হারিয়েছে ভুটানকে। ২৭ আগস্ট ফাইনালে মুখোমুখি হবে ভারত-নেপাল। তৃতীয় স্থানের জন্য বাংলাদেশ লড়বে ভুটানের বিপক্ষে।
দাপটের সঙ্গে গ্রুপ পর্বের দুই ম্যাচ জেতা বাংলাদেশ কিশোরদের কোচ মোস্তফা আনোয়ার এ হারটি মেনে নিতে পারছেন না। সেমিফাইনাল হারের জন্য তিনি ডিফেন্সের দুর্বলতা এবং খেলোয়াড়দের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝিকেই দায়ী করেছেন।
‘সেমিফাইনালটি কঠিনই ছিল। আমরা শুরু থেকে ভালো খেলে গোলের অনেক সুযোগ পেয়েছিলাম। কিন্তু কাজে লাগাতে পারিনি। ফরোয়ার্ডরা সুযোগগুলো নষ্ট করেছেন। দেখুন, যে গোলগুলো খেয়েছি তার ডিফেন্সের দুর্বলতা ও ভুল বোঝাবুঝিতে’-ম্যাচের পর মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ।
নেপাল কী মাঠে বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়েছিল? ‘ম্যাচে এমন অবস্থা ছিল না। আমরা তো নেপালকে গোল উপহার দিয়েছি। একটি হয়েছে আত্মঘাতী, অন্যটি ডিফেন্স ও গোলরক্ষকের হাস্যকর ভুল বোঝাবুঝি। আমরা ম্যাচের শেষ পর্যন্ত লড়েছি। সুযোগও পেয়েছিলাম। কিন্তু কাজের কাজটি হয়নি, গোল করতে পারি নি’-বলেছেন বাংলাদেশ কিশোরদের কোচ।-জাগোনিউজ