দেশে দেশে হাত মেলানোর বিচিত্র পদ্ধতি

আপডেট: April 18, 2017, 12:33 am

সোনার দেশ ডেস্ক



শুধু জাতি, ধর্ম বা বর্ণ নয় দেশে দেশে হাত মেলানোতেও রয়েছে ভিন্ন পদ্ধতি। একেক দেশের প্রথা ও সংস্কৃতি একেক রকম। ব্রাজিল ও যুক্তরাষ্ট্রে যেমন হাত মেলানোর সময় শক্ত করে ধরে রাখে তেমনি ব্রিটিশরা কোমলভাবে হাত মেলায়।
বিজনেস ইনসাইডারের প্রতিবেদন থেকে ১০ দেশের হাত মেলানোর ভিন্ন পদ্ধতি এখানে দেওয়া হলো।
যুক্তরাষ্ট্র : আপনার সঙ্গে যখন কোনো মার্কিনীর পরিচয় হবে সে অবশ্যই তার নাম বলবে এবং আপনার হাত শক্ত করে ধরে রাখবে।
যুক্তরাজ্য : খুব হালকাভাবে ব্রিটিশরা আপনার হাত ধরবে। কথা বলার সময় অবশ্যই তার একটা নির্ধারিত দূরত্ব বজায় রাখবে।
ব্রাজিল : ব্রাজিলের কোনো ব্যক্তির সঙ্গে আপনার দেখা হবে সে আপনার হাত শক্ত করে ধরবে ও চোখের দিকে থাকবে। একই কাজ বিদায় নেওয়ার সময়ও করবে তারা।
সংযুক্ত আরব আমিরাত : আরবের মানুষেরা সবসময় সবচেয়ে বয়সীদের থেকে হাত মেলানো শুরু করে। এটা দীর্ঘস্থায়ী হয়। খুব তাড়াতাড়ি তারা হাত ছাড়ে না।
রাশিয়া : রুশরা কখনোই বিপরীত লিঙ্গের হাত ধরে না। বিশেষ করে সেটা যদি ব্যবসায়িক মিটিং না হয়। পুরুষরা নারীদের হাতে চুমু দেয়।
অস্ট্রেলিয়া : আপনি যদি নারী হন তবে পুরুষেরা আপনাকে হাত আগে বাড়াতে বলবে। অস্ট্রেলিয়ায় নারীরা কখনও নারীদের সঙ্গে হাত মেলায় না।
থাইল্যান্ড : থাইরা হাত মেলায় না। বুকের কাছে তারা দুই হাত জড়ো করে একে অপরকে মাথা নিচু করে অভ্যর্থনা জানায়।
মেক্সিকো : মেক্সিকানরা দীর্ঘক্ষণ ধরে হাত মেলাতে পছন্দ করে। যদি একজন পুরুষ অন্য পুরুষের সঙ্গে হাত মেলায় তবে তা আলিঙ্গনের মধ্যেও শেষ হতে পারে।
সুইজারল্যান্ড : স্ইুসরা সবার সঙ্গে হাত মেলায়। প্রত্যেকে তাদের উপাধি যেমন, মিস, মিস্টার ও মিসেস ও নামের শেষ অংশ ধরে সম্বোধন করে।
ফ্রান্স : ফ্রেঞ্চরা খুব হালকাভাবে হাত ধরে এবং মেলানোর সময় দ্রুত ঝাঁকি দেয়। সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ