দ. এশিয়ায় ঘুষের হুমকির ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশে

আপডেট: নভেম্বর ১৫, ২০১৯, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ঘুষের হুমকির সর্বোচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হিসেবে বাংলাদেশের নাম উঠে এসেছে। সম্প্রতি আন্তর্জাতিক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
ট্রেস ব্রাইবেরি রিস্ক ম্যাট্রিক্স শিরোনামে ট্রেস ইন্টারন্যাশনালের প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে এ বছর বাংলাদেশ ৭২ পয়েন্ট পেয়েছে; যা গত বছরের চেয়ে দুই পয়েন্ট বেশি। ঘুষের হুমকির ঝুঁকি বেড়ে যাওয়ায় পয়েন্ট বেড়েছে বাংলাদেশের। আর এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১৭৮তম।
ট্রেস রিপোর্ট বলছে, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ঘুষের হুমকির ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশে। এই তালিকায় ভারত এবং পাকিস্তানের অবস্থান যথাক্রমে ৭৮ এবং ১৫৩তম।
ঘুষের হুমকির ঝুঁকির তালিকা প্রস্তুতকারী এই সংস্থার প্রধান কার্যালয় যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত হলেও প্রতিষ্ঠানটি কানাডায় নিবন্ধিত। বিশ্বজুড়ে ঘুষের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের প্রতিবেদন প্রকাশ করায় প্রতিষ্ঠানটির জনপ্রিয়তা রয়েছে।
মোটাদাগে ঘুষের ঝুঁকি বিবেচনার জন্য প্রত্যেকটি দেশকে এক থেকে ১০০ নম্বরের মধ্যে প্রাপ্ত নম্বর বিবেচনায় এই তালিকা প্রস্তুত করা হয়। ট্রেস বলছে, কোনো দেশ যত বেশি স্কোর পাবে, সেদেশে ঘুষের ঝুঁকির হুমকি বেশি।
বিশ্বে ঘুষের হুমকির ঝুঁকি সবচেয়ে কম নিউজিল্যান্ডে। তারপর কম ঝুঁকির এই তালিকায় নরওয়ে (২য়), ডেনমার্ক (৩য়), সুইডেন (৪র্থ) ও ফিনল্যান্ড (৫ম)।
অন্যদিকে, ঘুষের সর্বোচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ পাঁচ দেশ হলো : ভেনেজুয়েলা (১ম), ইয়েমেন (২য়), উত্তর কোরিয়া (৩য়), সাউথ সুদান (৪র্থ) ও সোমালিয়া (৫ম)।
সূত্র : ট্রেস ইন্টারন্যাশনাল, জাগোনিউজ