ধর্মান্ধতা থেকে উন্নয়নের পথে নেতৃত্ব দিতে হবে ছাত্রলীগকে || রাবি ছাত্রলীগের সম্মেলনে নানক

আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০১৬, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক:



‘ছাত্রলীগের মাধ্যমে ধর্মান্ধ বাঙালি জাতিকে এগিয়ে নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। ধর্মান্ধতা থেকে উন্নয়নের পথ পাড়ি দিতে তখন মূল দায়িত্ব পালন করেছিলো ছাত্রলীগ। এখনও সেই আদর্শে নেতৃত্ব দিতে হবে ছাত্রলীগকে। সেই দর্শন মাথায় রেখে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।’
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ২৫তম সম্মেলনে এসব কথা বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।
সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ‘আমরা যখন ছাত্র রাজনীতি করেছি তখন জামায়াত-শিবিরের কারণে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্মেলন করতে পারি নাই। ঢুকতেও পারি নাই। ওই বিএনপি-জামায়াত আর শিবিরের ষড়যন্ত্র এখনো শেষ হয়নি। ওরা ঘাপটি মেরে আছে। ওরা তা-ব চালিয়েছে, মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে, ওরা বাংলাদেশের স্বাধীনতা মেনে নিতে পারে নাই। ওদেরকে রুখে দিতে বড় ভূমিকা রাখতে হবে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের।’
খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে নানক বলেন, ‘আপনি এখন নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনে আপনাদের সাথে কথা বলার কথা বলছেন। যখন শেখ হাসিনা কথা বলতে চেয়েছিলো তখন তো তাকে অপমান করেছিলেন। নির্বাচন হলো জনগণের কথা। আপনি জনগণকে হারিয়ে ফেলেছেন। তাদের আস্থা হারিয়েছেন। ওই জামায়াত-শিবিরের সঙ্গ ত্যাগ  না করলে কোন আলোচনা হবে না।’
বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবাস বাংলাদেশ মাঠে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন।
উদ্বোধকের বক্তব্যে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, ‘এই রাজশাহীর প্রধান দুই শত্রু হলো জামায়াত-শিবির এবং মাদকাসক্ততা। এই দুই শক্তির বিরুদ্ধে ছাত্রলীগকে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। মাদকাসক্তি একটা ব্যাধি। একে দূর করতে পড়াশুনার প্রতি নেশা বাড়াতে হবে। পাশাপাশি বাংলাদেশের আরেক সমস্যা নিরক্ষরতা। শেখ হাসিনাকে আগামী ২০১৭ সালের মধ্যে নিরক্ষরমুক্ত বাংলাদেশ উপহার দিতে চাই। এক্ষেত্রেও আপনাদের বড় ভূমিকা রাখতে হবে।’
সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘ছাত্রলীগ কর্মীতে হতে হবে এমন আদর্শবান যার কাছে শিক্ষার্থীরা  নিরাপদ থাকবে। তাকে দেখে যেন সবাই বলে ‘এই দেখো বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক’। তবে ছাত্রলীগে কেউ যাতে অনুপ্রবেশ করতে না পারে, এবং কোন ক্ষতি করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। তিনি বলেন, যারা যোগ্য তাদেরকেই নেতৃত্বে আনা হবে।’
প্রধান বক্তার বক্তব্যে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন বলেন, ‘মেধাবীদেরকে ছাত্র রাজনীতিতে আসতে হবে। জনপ্রিয়, মেধাবী, যোগ্যরাই হবে আগামী দিনের নেতা। এক্ষেত্রে ছাত্রনেতাদের আকর্ষণীয় হতে হবে। এটা পোশাক আশাক বা চেহারায় আকর্ষণীয় নয়। কাজ, কথা-বার্তা এবং আচার-আচরণে আকর্ষণীয় ও স্মার্ট হতে হবে।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বে পরিণত করতে ছাত্রলীগকে ফ্রন্ট লাইনের যোদ্ধা হতে হবে। জামায়াত শিবিরের প্রেতাত্মাদের এই ক্যাম্পাস থেকে বিতাড়িত করতে হবে।’
এর আগে দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি এবং গণঅভ্যূত্থানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদ শাহসুজ্জোহার কবরে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। পরে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে এবং বাংলাদেশের ও ছাত্রলীগের পতাকা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন সময় জামায়াত-শিবিরের হামলায় আহত ও পঙ্গুত্ব বরণ করা শিক্ষার্থীদের উত্তরীয় পরিয়ে দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাঞ্জুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক রাকসু ভিপি নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, রাজশাহী-০৩ আসনের সাংসদ আয়েন উদ্দিন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার প্রমুখ।
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি আবু হুসাইন বিপু, আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা, জাহাঙ্গীর আলমসহ রাজশাহী মহানগর, রাজশাহী জেলার ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।
সম্মেলনে রাবি ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাঞ্জু ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লবকে ভারপ্রাপ্ত থেকে পূর্ণাঙ্গ সভাপতি ও সম্পাদক হিসেবে ঘোষণা দেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ। এদিকে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়নি।