ধামইরহাটে সরকারি দিঘীতে মাছ চুরির অভিযোগে চারজন গ্রেফতার

আপডেট: জুলাই ২৭, ২০২০, ১০:৪৮ অপরাহ্ণ

ধামইরহাট প্রতিনিধি


নওগাঁর ধামইরহাটে সরকারি কাজে বাধা ও আলতাদিঘী থেকে মাছ চুরির অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। উপজেলার আলোচিত আলতাদিঘীতে এ ঘটনা ঘটে। অবশেষে বনবিট কর্মকর্তা ২১জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
ধামইরহাট থানায় এজাহার সূত্রে জানা গেছে,উপজেলার দাদনপুর মৌজায় অবস্থিত আলতাদিঘী জাতীয় উদ্যানে অবস্থিত সরকারি গেজেট দ্বারা নোটিফিকেশনভূক্ত ‘বিশেষ জীব বৈচিত্র সংরক্ষণ এলাকার’ জলাশয়ে কতিপয় লোকজন বেআইনিভাবে অনুপ্রবেশ করে। গত ২১ জুলাই ভোর রাতে অনুপ্রবেশকারীরা আলতাদিঘীতে নেমে টেটা, কোচ (ফার্সা), পাচা (খোঁচা), লাঠিসোটা এবং ধারালো হাসুয়া দ্বারা ৫ থেকে ২০ কেজি ওজনের ৮০টি বড় আকারের রুই, কাতলা, মৃগেল জাতের ৪শত কেজি মাছ নিধন করে।এতে সরকারের প্রায় প্রায় ২ লাখ টাকা ক্ষতি হয়। ধামইরহাট ফরেস্ট বিট কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে ২১ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে থানায় গত ২৩ জুলাই রাতে একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ আলতাদিঘী গ্রামের মৃত ইয়া মন্ডলের ছেলে মোজাম্মেল হক (৫৫),তার ছেলে বিপ্লব হোসেন (৩২),একই গ্রামের মুকতি হোসেনের ছেলে মুনছুর আলী (২০) এবং জোতমাহমুদ গ্রামের মৃত শামসুদ্দিনের ছেলে মোজাম্মেল হক (৩৫) কে আটক করে জেল হাজতে পাঠায়।
এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.আব্দুল মমিন বলেন,এ ঘটনার সাথে যারা জড়িত তদন্ত করে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ