নওগাঁয় বাথরুম মিললো ভারসাম্যহীন নারীর গলাকাটা লাশ

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪, ২:৫৯ অপরাহ্ণ


আব্দুর রউফ রিপন, নওগাঁ প্রতিনিধি: জেলার মহাদেবপুরে মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বাথরুমের ভেতর থেকে নার্গিস বেগম নিপুন (৪৩) নামের মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত নার্গিস উপজেলার চক দৌলত গ্রামের মৃত নাসির উদ্দীনের মেয়ে এবং উপজেলা সদরের মৃত আনোয়ার হোসেন সোনারের স্ত্রী ছিলেন। নাুর্গস দীর্ঘদিন থেকে সদরের মডেল স্কুল মোড়ে মায়ের বাসায় থাকতেন।

নিহতের মা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, এদিন সকাল ৭ টার দিকে বাসার ভিতরেই বাথরুমে যায় নিপুন। ফিরতে অনেক বিলম্ব হওয়ায় মা মেরিনা রহমান বাথরুমে গিয়ে মেয়ের গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। এ সময় তিনি কোরআন শরিফ পড়ছিলেন বলে জানান তিনি। তিনি জানান, তার মেয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল।
মেয়েকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মোস্তফা আলীমের কাছে চিকিৎসা করাচ্ছিলেন। এর আগেও সে দু’বার আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। মঙ্গলবার সকালে রান্নাঘর থেকে বটি নিয়ে এসে সে নিজেই নিজের গলা কেটে আত্মহত্যা করেছে এমনটি তার ধারণা করছেন তিনি।

মাস তিনেক আগে স্বামীর সাথে ডির্ভোস হয় নার্গিসের। ডির্ভোসের মাস দেড়েক পর ওই স্বামীর মৃত্যু হলে সে আরো বেশি মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে।
মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রুহুল আমিন বলেন, প্রাথমিক সুরতহাল শেষে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Exit mobile version