নওগাঁয় কিশোরীকে ধর্ষণের অপরাধে ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ

আপডেট: March 29, 2020, 6:25 pm

নওগাঁ প্রতিনিধি


ধর্ষণের অভিযোগে আটককৃত তিনজন- সোনার দেশ

নওগাঁর ধামইরহাটে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। কিশোরীর চিৎকার শুনে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করেন। পরে তিন ধর্ষককে আটক করে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।
জানা গেছে, উপজেলা ধামইরহাট ইউনিয়নের অন্তর্গত আলতাদিঘী শালবন জাতীয় উদ্যানের পশ্চিম পাড়ে শালবনে গত শনিবার (২৮ মার্চ) বিকেলে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত বড়শিবপুর ঘোনাপাড়া গ্রামের জনৈক ব্যক্তির কিশোরী মেয়েকে (১৬) জোর করে আলতাদিঘীতে তুলে আনে ওই ধর্ষকরা। পরবর্তীতে মেয়েটির ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে মেয়েটির চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। এলাকাবাসী মেয়েটিকে উদ্ধার করে এবং তিন ধর্ষককে হাতেনাতে আটক করে। আটককৃতরা হলো উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত মঙ্গলবাড়ী হাসপাতাল পাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে শরিফুল ইসলাম (১৯), একই এলাকার জোবায়দুল হকের ছেলে আবদুল মমিন (২০) এবং আতোয়ার হোসেনের ছেলে মোল্লা হোসেন (২৪)। খবর পেয়ে থানা পুলিশ মেয়েসহ তিন ধর্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
এব্যাপারে ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.শামীম হাসান সরদার বলেন, আসামীদেরকে আটক করা হয়েছে। এই বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।