নওগাঁয় বজ্রপাতসহ পৃথক ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু

আপডেট: এপ্রিল ২২, ২০২০, ৯:১০ অপরাহ্ণ

নওগাঁ প্রতিনিধি


নওগাঁর মান্দা ও নিয়াামতপুর উপজেলায় পৃথক পৃথক ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২২এপ্রিল) মান্দা উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের চকশ্রীকৃষ্ণ গ্রামে নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় আখিঁ (২১) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আখিঁ চকশ্রীকৃষ্ণ গ্রামের হারুনের স্ত্রী। এছাড়াও উপজেলার কুলিহার বাজার থেকে নিজ বাড়িতে যাওয়ার সময় বজ্রপাতে ময়নুল হোসেন (৩২) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়।
ঘটনাদুটির সত্যতা নিশ্চিত করে মান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোজাফফর হোসেন বলেন, সংবাদ পেয়ে কালিকাপুর ইউনিয়নের চকশ্রীকৃষ্ণ গ্রামে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়েছে এবং এঘটনায় মেয়ের বাবা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।
এছাড়াও বুধবার কুলিহার বাজার থেকে নিজ বাড়িতে যাচ্ছিলেন ময়নুল হোসেন। এসময় রাস্তার মধ্যে বজ্রপাত ঘটলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। মইনুল হোসেন কুলিহার গ্রামের তাহের মন্ডলের ছেলে। অন্যদিকে জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার কানইল গ্রামে তারা মুনি (৩২) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। তারা মুনি ওই গ্রামের ভুট্টো মিয়ার স্ত্রী।
নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ূন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুপুরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্য পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। এরই জের ধরে তারা মুনিকে মারধর করে ভুট্টো মিয়া। মারধরের একপর্যায়ে গুরুতর আঘাত গেলে মারা যায় তারা মুনি।
পরে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় ভুট্টো মিয়াকে পাওয়া যায়নি। এবিষয়ে মেয়ের ভাই বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এছাড়াও উপজেলা বাজারের পশু হাসপাতাল এলাকায় বাড়ির পাশে জমি মাপার কাজ করার সময় বজ্রপাতে ওয়াহেদ শিমুল (৩২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ওয়াহিদ শিমুল সদর ইউনিয়নের চৌধুরীপাড়া গ্রামের আমিনুল ইসলামের ছেলে।