নওগাঁয় ভারত থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ১০ জন গ্রেফতার

আপডেট: মার্চ ৬, ২০২১, ৯:৩৬ অপরাহ্ণ

নওগাঁ প্রতিনিধি:


নওগাঁয় অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের অভিযোগে বিজিবি ১০ জন নারী ও পুরুষকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
শনিবার (০৬ মার্চ) তাদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের অভিযোগে মামলার পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন সাপাহার থানার ওসি তারেকুর রহমান।
গ্রেফতাররা হলেন, গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া থানার ভেন্নাগাড়ি গ্রামের প্রশান্ত বিশ্বাসের ছেলে পার্থ বিশ্বাস (২০), মাদারীপুর জেলার ডাসার থানার শসিশংকর গ্রামের প্রিয়লাল তপাদারের ছেলে প্রাণতোষ তপাদার (২২), যশোর জেলার মনিরামপুর থানার পাড়ালা গ্রামের অসিত চক্রবর্তীর ছেলে রাজীব চক্রবর্তী (২৯) এবং একই গ্রামের দুলাল ভট্টাচার্যের ছেলে সন্দীপ ভট্টাচার্য (৩২)।
এছাড়া, চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানার বড়দুয়ারা গ্রামের সঞ্জিব বড়ুয়ার ছেলে রনি বড়ুয়া (২০), পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর থানার রামভদ্রা (শেখমাটিয়া) গ্রামের নকেন্দ্রনাথ বাওয়ালীর ছেলে রনি গোপল বাওয়ালী (৩৭), যশোর জেলার বেনাপোল পোট থানার নারানপুর (কলেজ) গ্রামের শাহাদাত হোসেনের ছেলে হাবিবুর রহমান (২২) এবং কক্সবাজার জেলার রামু থানার হাজারীকুল গ্রামের কন্পর বড়ুয়ার ছেলে নারায়ণ বড়ুয়া (২০)।
গ্রেফতার নারীদের মধ্যে রয়েছেন, নড়াইল জেলার সদর থানার মির্জাপুর (রুখালী) গ্রামের বাশার বিশ্বাসের মেয়ে মুন্নি বিশ্বাস (২৪) এবং গোপালগঞ্জ জেলার মোকসুদপুর থানার রঘুয়ারডাঙ্গা (দিগনগর) গ্রামের রুস্তম বেগের মেয়ে স্বপ্না বেগম (৩০)।
সাপাহার থানার ওসি তারেকুর রহমান জানান গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে হাঁপানিয়া বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার নায়েক সুবেদার আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে শনিবার দুপুরে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে সাপাহার থানায় মামলা করেছেন।
বিজিবি নওগাঁ-১৬ ব্যাটালিয়নের ই-কোম্পানি হাঁপানিয়া ক্যাম্প কমান্ডার নায়েক সুবেদার আব্দুল কুদ্দুস জানান, শনিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে সীমান্তের ২৩৬ মেইন পিলার এলাকার কৃষ্ণসদা গ্রামের পাশ দিয়ে ভারত থেকে একদল নারী ও পুরুষ অবৈধভাবে বাংলাদেশ অভ্যন্তরে প্রবেশ করেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির টহল দল সেখানে উপস্থিত হয়ে তাদের আটক করা হয়।
এদিকে, গ্রেফতাররা পুলিশকে জানিয়েছেন, তারা বেশ কিছুদিন আগে অবৈধভাবে ভারতে গিয়েছিলেন। সেখানে অবস্থানকালে তারা ভারতীয় পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। ভারতের বিভিন্ন কারাগারে সাজা ভোগ শেষে ছাড়া পেয়ে রাতের বেলা ওই পথ দিয়ে বাংলাদেশে ফিরে আসছিলেন তারা।