নওগাঁয় সড়ক পাকাকরণ কাজে তিন নম্বর ইট ব্যবহার || প্রতিবাদে এলাকাবাসির মানববন্ধন

আপডেট: জুলাই ৩, ২০১৭, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

নওগা প্রতিনিধি


সড়কে নিম্নমানের ইট ব্যবহারের প্রতিবাদ মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা সোনার দেশ

নওগাঁর ধামইরহাট পল্লীতে সড়ক পাকাকরণ কাজে অনিয়মের অভিযোগে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। গতকাল  রোববার সকাল ১১ টায়  উপজেলার চিলিমপুর চৌঘাট সড়কে এ মানববন্ধন করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এতে কয়েকশত নারী পুরুষ অংশ নেয় ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, চিলিমপুর থেকে চৌঘাট পর্যন্ত ১ কিলোমিটার গ্রামীণ সড়ক পাকাকরণ কাজে ৩ নম্বর ইট ব্যবহার করছেন ঠিকাদার। এসব বিষয়ে গ্রামবাসী প্রতিবাদ করলে হামলা ও মামলার ভয় দেখাচ্ছেন ঠিকাদার। বক্তারা আরো বলেন, এক কিলোমিটার এ সড়ক পাকা করার জন্য অনেক দিন থেকে আমরা দাবি করছিলাম। স্থানীয় সাংসদ শহিদুজ্জামান সরকার  এলাকাবাসীর এ দাবি পূরণ করেন। কিন্ত ঠিকাদারের অধিক অর্থ কামানোর লক্ষে এ সড়ক পাকাকরণ উদ্দেশ্য ব্যহত হচ্ছে । ঠিকাদার প্রথমে কিছু ১ নম্বর ইট ফেলে খোয়া দেয় সড়কে এর পর ২ নম্বর এবং ৩ নম্বর ইটের খোয়া ব্যবহার করা শুরু করে। এতে প্রতিবাদ করতে গেলেই মারপিট করা এবং মামলা দিয়ে হয়রানির ভয় দেখানো হচ্ছে। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, গোলাপ, মজনু, শাহিনুর, বিশ্বনাথ প্রমুখ। স্থানীয় এলজিইিডি অফিস সূত্র জানায়, স্থানীয় সরকার সড়ক অবকাটামো প্রকল্পর অধিন ৫৬ লাখ টাকা ব্যয়ে এ সড়ক পাকাকরণ কাজ শুরু হয় এবছর এপ্রিল মাসে ।
সাথী এন্টার প্রাইজ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজ টি পায়। কাজের শুরুতেই ওই প্রতিষ্ঠানের নি¤œমানের কাজ নিয়ে প্রশ্ন তোলে এলাকাবাসী। প্রতিষ্ঠান প্রধান জাবিদ হোসেন স্থানীয় সরকার দলীয় পদে থাকায় প্রভাব বিস্তার করে কাজ পার করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। ধামইরহাট উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী তাকে কয়েকবার কাজের মান বৃদ্ধির জন্য সতর্ক করে। কিন্ত কোনো কিছুকে তোয়াক্কা না করায় জনরোষ সৃষ্টি হয়। ঠিকাদার জাবিদ হোসেন তার বিরুদ্ধে আনা নি¤œমানের কাজের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কাজ ভাল হচ্ছে, ১ নম্বর ইট দিয়েই চলছে। কিছু লোক সড়কের পাশে দিয়ে ড্রেন চায় তা না পাওয়ায় তারা এ অভিযোগ তুলেছে। ধামইরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলি হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়েছি কাজের মান খারাপ হলে তা ক্ষতিয়ে দেখা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ