নওগাঁয় ২২কি.মি. রাস্তার পাঁকাকরণের কাজের উদ্বোধন

আপডেট: অক্টোবর ৩, ২০২২, ১০:৪০ অপরাহ্ণ

নওগাঁ প্রতিনিধি:


নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন হেলাল বলেছেন, এক সময়ের তলাবিহীন ঝুঁড়ি নামে খ্যাত বঙ্গবন্ধুর অর্জন করা বাংলাদেশ বর্তমানে সারা বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। এটি সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার চৌকস নেতৃত্বের কারণেই। আজ গ্রামের মানুষ শহরের সুবিধা পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শিতা পদক্ষেপের কারণেই। বাংলার প্রত্যন্ত গ্রামের প্রায় সকল মেঠো রাস্তাতেই ইট আর পাঁকার ছোঁয়া লেগেছে। আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই আজ এই উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমি উপ-নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন কারণে বন্ধ হয়ে থাকা জনগুরুত্বপূর্ন এই ২২কিলোমিটার আঞ্চলিক সড়কের পাকাকরনের কাজটি দ্রুত করার জন্য দিনের পর দিন সওজের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ ও মন্ত্রনালয়ে ধর্না দিয়েছি। সংসদেও এই বিষয়টি বার বার তুলে ধরার মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষন করার চেষ্টা করেছি। আজ দীর্ঘ চার পর রাস্তাটির পাকাকরনের মাধ্যমে এই অঞ্চলের লাখ লাখ মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হতে চলেছে। আর এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার জন্য আগামীতেও উন্নয়নের প্রতিক নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবারোও প্রধানমন্ত্রী করার কোন বিকল্প নেই। সর্বহারা ও জেএমবির মদদদাতা বিএনপি-জামায়াতকে আবারো ক্ষমতায় আনলে এক সময়ের রক্তাক্ত জনপদ হিসেবে খ্যাত আত্রাই, রাণীনগর ও তার আশেপাশের অঞ্চলগুলো আবারো জবাই, খুন, গুম আর হত্যার স্বর্গরাজ্য হিসেবে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই আগামী জাতীয় নির্বাচনে আবারোও নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে ওই সব সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করতে হবে।

দীর্ঘ চার বছর পর নওগাঁর রাণীনগর-আবাদপুকুর-কালীগঞ্জ ২২কিলোমিটার রাস্তার পাঁকাকরনের কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এই কথাগুলো বলেন। উদ্বোধন উপলক্ষে সোমবার (৩ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার আবাদপুকুর চৌরাস্তা মোড়ে উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে উদ্বোধন ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ দুলুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহাদাত হুসেইন, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন ক্লোজআপ ওয়ান খ্যাত শিল্পী বিন্দুকনা, সাজু, মিরাক্কেলের তানভির এবং স্থানীয় শিল্পী।

উল্লেখ্য, উপজেলার রাণীনগর থেকে আবাদপুকুর হয়ে কালীগঞ্জ পর্যন্ত প্রায় ২২কিলোমিটার রাস্তা স্থানীয় প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) থেকে পাকা করনের কাজ করা হয়। এরপর রাস্তায় যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং এলাকার মানুষের জীবন মান উন্নয়নে রাস্তাটি এলজিইডি থেকে সড়ক ও জনপথ বিভাগে স্থানান্তর করা হয়। গত ২০১৮ইং সালের শেষের দিকে সড়কটি আরো প্রশস্ত, টেকসই ও মজবুত করনের লক্ষ্যে নতুন করে পাকাকরনের টেন্ডার দেয়া হয়। এতে ২২কিলোমিটার রাস্তা, ২৯টি সেতু-কালভার্ট নির্মানে ব্যয় ধরা হয়েছিল ১০৫কোটি টাকা। ওই বছরই রাস্তার কার্পেটিং তুলে কোন রকমে রোলার দিয়ে ফেলে রাখে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার।

এ ছাড়া সেতু-কালভার্ট নির্মান অব্যাহত থাকে। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ে কাজ না করে বার বার সময় চেয়ে আবেদন করতে থাকে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। এক পর্যায়ে ২০২১সালের মে মাসে রাস্তা পাকাকরন কাজের কার্যাদেশ বাতিল করে সংশ্লিষ্ট দপ্তর। এরপর নতুন করে আবারো টেন্ডার দেয়া হলে টেন্ডারের বিরুদ্ধে মামলা করেন আগের ঠিকাদার। ফলে আবারো কাজ আটকে যায়। এতে নতুন করে দীর্ঘ ভোগান্তিতে পরে এলাকার লাখ লাখ মানুষ। একপর্যায়ে ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে মামলা নিষ্পত্তি হলে আবারো টেন্ডারের প্রক্রিয়া শুরু হয়। ২২কিলোমিটার রাস্তা পাকা করনে ৩৮কোটি ৩৪লক্ষ ২০হাজার ৫৮১টাকা ৮৩ পয়সা ব্যয় ধরে টেন্ডার অন্তে গত ১০আগস্ট কার্যাদেশ জারী করা হয়। রাস্তার কাজ শেষ করতে সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে আগামী ২০২৩ইং সালের ৯এপ্রিল পর্যন্ত।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ