নওগাঁ-২: আচরণবিধি ভঙ্গ করায় নৌকা ও লাঙ্গলের প্রার্থীকে শোকজ

আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০২৩, ৯:৫৬ অপরাহ্ণ

শহীদুজ্জামান সরকার ও মো. তোফাজ্জল হোসেন

নওগাঁ প্রতিনিধি:


দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নওগাঁ-২ (ধামইরহাট-পত্নীতলা) আসনের নৌকা ও লাঙ্গলের প্রার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দিয়েছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় তাঁদের এই নোটিশ দেয়া হয়।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) এই দুই প্রার্থীকে শোকজের লিখিত নোটিশ দেন নওগাঁ-২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা সিনিয়র সহকারী জজ মো. আহসান হাবিব। তিনি সন্ধ্যায় দুই প্রার্থীকে নোটিশ দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নোটিশ পাওয়া প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকার প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার এবং জাতীয় পার্টির মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী মো. তোফাজ্জল হোসেন।

পৃথক ২ টি নোটিশে বলা হয়, ১০ ডিসেম্বর (রোববার) শহীদুজ্জামান সরকার ও মো. তোফাজ্জল হোসেনকে সশরীরে সংশ্লিষ্ট কার্যালয়ে উপস্থিত থেকে লিখিত ব্যাখ্যা দিতে হবে।
শহীদুজ্জামানকে দেয়া ওই নোটিশে বলা হয়, গত ৩০ নভেম্বর ধামইরহাট উপজেলা চত্বর ও পত্নীতলার নজিপুর বাজারে আপনার দলীয় নেতা-কর্মীরা ব্যানার, ফেস্টুন সহকারে আপনার উপস্থিতিতে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা করেন যা নির্বাচনী বিধিমালার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

এছাড়া আপনারা দলীয় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেন। সমাবেশে আপনার পক্ষে এবং আপনার নেতৃত্বে শান্তি সমৃদ্ধি ও উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। সমাবেশের ফলে জনগণের চলাচলের চরম প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয় যা বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশ পায়। নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী কোনো প্রার্থী কিংবা তাঁদের পক্ষে অন্য কোনো ব্যক্তি জনগণের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি করতে পারে এমন সড়কে জনসভা কিংবা পথসভা করতে পারবেন না।

তা ছাড়া বিধিমালার ১২ বিধি মতে কোনো প্রার্থী ভোট গ্রহণের জন্য নির্ধারিত দিনের তিন সপ্তাহ সময়ের পূর্বে কোনো নির্বাচনী প্রচার শুরু করতে পারবেন না। মিছিল ও সমাবেশের মাধ্যমে নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা লঙ্ঘিত হয়েছে।

একইভাবে মো. তোফাজ্জল হোসেনকে দেয়া পৃথক একটি শোকজ নোটিশে বলা হয়, ৩ ডিসেম্বর ধামইরহাট উপজেলা চত্বর ও পত্নীতলার নজিপুর বাজারে আপনি এবং আপনার দলীয় নেতা-কর্মীরা ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ডসহ নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন যা নির্বাচনী বিধিমালার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। এ ছাড়া আপনি নির্বাচনী এলাকায় ‘জাতীয় পার্টিতে যোগ দিন, লাঙ্গল মার্কায়’ ভোট দিন এই জাতীয় বিভিন্ন ব্যানার ফেস্টুনসহ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে দলীয় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। এতে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘিত হয়েছে।

এ বিষয়ে জাপার প্রার্থী মো. তোফাজ্জল হোসেন জানান, তিনি মিছিল মিটিং করেননি। বরং অন্যরা আচরণবিধি ভঙ্গ করছেন। কেবল নিজ আসনে জাতীয় পার্টির একটি দলীয় অফিস উদ্বোধন করেছেন বলেও জানান তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ