নওগাঁ-৩ আসনে স্বামীর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে চান স্বতন্ত্র প্রার্থী মায়া চৌধুরী

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০২৩, ৭:১৫ অপরাহ্ণ

সংবাদ সম্মেলনে মাহফুজা আকরাম মায়া চৌধুরীসহ অন্যরা

বদলগাছী (নওগাঁ) প্রতিনিধি:


নওগাঁ-৩ (বদলগাছী-মহাদেবপুর) স্বামীর হারানো আসন পুনরুদ্ধারের মাধ্যমে তার রেখে যাওয়া অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করবেন। প্রয়াত সংসদ সদস্য আকরাম হোসেন চৌধুরী এমপি থাকাকালিন বদলগাছী-মহাদেবপুর দুই উপজেলায় যে উন্নয়ন করেছেন তা তুলে ধরেন। সেই সাথে নেতাকর্মীদের মাঠে থেকে সাধারণ ভোটারদের মনোযোগ আকৃষ্ট করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভানেত্রীকে উপহার দিবেন।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে বদলগাছী সদর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী সদ্য প্রয়াত সাবেক এমপি ড. আকরাম হোসেন চৌধুরীর সহধর্মীনি ও বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য মাহফুজা আকরাম মায়া চৌধুরী সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা তুলে ধরেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাফিজার রহমান, সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক নজরুল ইসলাম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাবেক আহবায়ক ও ইউপি সদস্য আনিছুর রহমান,উপজেলা ওলামালীগের আহ্বায়ক মাহবুদ হাসান,যুগ্ম আহবায়ক হাফেজ মাওলানা মোকলেছুর রহমান,সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক এমরান হোসেন সোহাগ, সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আবু তাহের সিফার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সদস্য শহিদুল ইসলাম, সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান, বালুভরা ইউনিয়ন জাতীয় শ্রমিকলীগের সভাপতি অখিল চন্দ্র সহ অন্যান্য নেতাকর্মী বৃন্দ ও মায়া চৌধুরীর বড় ছেলে সামস্ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলন করে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আরও বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তোমরা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে জয়লাভ করলে আমার দরজা তোমাদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এমন কথা তুলে ধরে মায়া চৌধুরী অভিযোগ করেন, এই আসনে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী যে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন, তিনি আমাকে বার বার নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য অনুরোধ করছে। কিন্তু আমি নির্বাচন থেকে সরে গেলে আমার স্বামীর রেখে যাওয়া অসমাপ্ত কাজ সম্পূর্ন হবে কেমনে। তাই আমাকে কোন প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বললেও ও আমি তা পারবো না। ইতিমধ্যে আমার স্বামী আকরাম হোসেন চৌধুরীর মৃত্যুর পর দুই উপজেলার মা-বোনদের নিকট গিয়েছি। তারা আমাকে নির্বাচনে থাকতে বলেছে। আমি নির্বাচনে না থাকলে অনেক মা-বোনেরা ভোট দিতেই যাবে না এমন কথাও বলেছেন। তাই আমি নির্বাচনে থাকবো এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেই এমপি নির্বাচিত হবো।

সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি আর ও বলেন, এমপি নির্বাচিত হলে শিক্ষিত বেকার যুবক-যুবাদের সরকারি চাকরির পাশাপাশি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলবেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ