নওহাটা-দুয়ারির রাস্তার বেহাল দশা, পথচারীদের ভোগান্তির শেষ নেই

আপডেট: অক্টোবর ২৭, ২০২১, ১০:০১ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে নওহাটা পৌরসভার নওহাটা কলেজ মোড় থেকে দুয়ারির মোড় পর্যন্ত রাস্তার বেহাল দশা হয়েছে। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় অল্প বৃষ্টিতে সৃষ্টি হচ্ছে সেতসেতে ও জলাবদ্ধতা। ফলে যাতায়াতের সময় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পথচারী, স্থানীয় জনগণ, গাড়িচালক ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সবাইকে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় গর্ত সৃষ্টি হয়ে বেহাল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘ সময়ের মধ্যেই এসব রাস্তার সংস্কার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় জনগণ, ব্যবসায়ী, গাড়িচালক ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

নওহাটা সরকারি ডিগ্রি কলেজের (সাবেক) অধ্যাপক আকবর হোসেন বলেন, মহানন্দখালী এলাকায় রাস্তার পাশে আমার বাড়ি। বৃষ্টি হলেই রাস্তার মাঝে পানি জমে থাকে। পাশ দিয়ে কোনো গাড়ি গেলেই পথচারীদের গায়ে কাঁদা পানি চলে আসে। এমনকি হাঁটতেও শরীরের কাঁদা লেগে যাচ্ছে। অথচ দীর্ঘ সময় ধরে রাস্তাগুলো এমন খারাপ অবস্থা হলেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন।

নওহাটা সরকারি ডিগ্রি কলেজের অফিস সহকারী পিপুল বলেন, প্রায় ৫ বছর ধরে দেখছি রাস্তাটির কোনো ধরনের উন্নয়নমূলক কাজ হয় নাই। বৃষ্টি হলেই পথচারীদের ভোগান্তির শেষ থাকে না। ফলে রাস্তাটিতে এক্সিডেন্টের পরিমাণও দিন দিন বেড়েই চলেছে। তাই আমরা রাস্তাটি দ্রুত সংস্কারের দাবি জানাচ্ছি।

দুয়ারি এলাকার সাইদুর ইসলাম নামের এক অটোচালক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, পুরো রাস্তার বেহাল অবস্থায় থাকলেও সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেই। ফলে অটো, রিক্সা, সিএনজি, বাস-ট্রাক চলতেও যেমন সমস্যা, তেমনি পায়ে হাঁটতেও সমস্যা হচ্ছে। তাছাড়া বৃষ্টি হলে পানি জমে চলাচলের প্রায় অনুপযোগী হয়ে যায়।

নওহাটা ডিগ্রি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র প্রবাল বলেন, এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন চলাচল করতে হয়। রাস্তাতে হাঁটার পরিবেশ নেই। সব সময় পানি জমে থাকে। এমনিতেই রাস্তার বেহাল দশা তার উপর ট্রাকের মতো ভারী যানবাহন চলাচলের ফলে বাজে পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে। এমতাবস্থায় সময়ক্ষেপণ না করে দ্রুত রাস্তাগুলো মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান এ শিক্ষার্থী।

এবিষয়ে জানতে চাইলে পবা উপজেলা প্রকৌশলী সঞ্জয় মোহন সরকার বলেন, ভারী যানচলাচলের কারণে নওহাটা পৌরসভার নওহাটা কলেজ মোড় থেকে দুয়ারি মোড় পর্যন্ত রাস্তাটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মাসখানিকের মধ্যেই রাস্তার রিপেয়ারিং এর কাজ শুরু হবে। ঠিকাদার নির্বাচনের কাজ চলমান রয়েছে। জন দুর্ভোগ লাঘবের উদ্দেশ্যে রাস্তা সংস্কারের কাজ দ্রুত সময়ের মধ্যে হাত দেয়া বলে জানান এই প্রকৌশলী।

এবিষয়ে নওহাটা পৌরসভার মেয়র মো. হাফিজুর রহমান হাফিজ জানান, আমরা ইতোমধ্যে নওহাটা পৌরসভার বিভিন্ন রাস্তার কাজ শুরু করেছি। রাস্তাগুলোও তৈরিতে বিশেষ কিছু পরিকল্পনা রয়েছে। এই রাস্তাটি এলজিইডি’র আওতাধীন। আমি উপজেলা প্রকৌশলীর সাথে কথা বলেছি। তিনি জানিয়েছেন দুই মাসের মধ্যে রাস্তা সংস্কারের কাজ শুরু করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ