নগরীতে খাৎনার অনুষ্ঠানে পুলিশের বাঁধা

আপডেট: মার্চ ২১, ২০২০, ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


নগরীর কাদিরগঞ্জ গ্রেটাররোড এলাকায় স্বপ্নীল কমিটিনিটি সেন্টারে বিয়ের আয়োজনে অয়োজক ও অতিথিরা সোনার দেশ

নগরীতে করোনা আতঙ্কে সুন্নতে খাৎনার অনুষ্ঠান পণ্ড করে দিয়েছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে তালাইমারী পুলিশ ফাঁড়ির একদল পুলিশ গিয়ে ওই অনুষ্ঠান পণ্ড করে দেয়। এসময় অনুষ্ঠান আয়োজককে অতিথিদের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দেয়ার নির্দেশ দেয় পুলিশ।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, করোনা আতঙ্কে কারণে গণজমায়েত নিষিদ্ধ থাকার পরও সুন্নতে খাৎনার অনুষ্ঠানের জন্য ৩০০ থেকে ৪০০ লোকের দুপুরের খাবার আয়োজন করেন ভদ্রা এলাকার আতর আলী নামের এক ব্যক্তি। ওই অনুষ্ঠানের জন্য প্যান্ডেলও তৈরি করা হয়। পাশাপাশি সকাল থেকেই চলতে থাকে রান্নার কাজ। অতিথি আপ্যায়নের জন্য কাটা হয় গরু। কিন্তু করোনা আতঙ্কের কারণে স্থানীয়দের মাঝে এ নিয়ে বিরূপ প্রভাব তৈরি হয়। এরপর বিষয়টি জানার পর তালাইমারী পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায়।
চন্দ্রিমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুম মনির বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে রাজশাহীতে গণজমায়েত নিষিদ্ধ রয়েছে। এ নিষেধাজ্ঞার মধ্যে ভদ্রা মাজারের সামনে আতর আলী তার ছেলের সুন্নতে খাৎনার অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। এতে করে সেখানে প্যান্ডেল তৈরি করে চারশ লোকের দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়। খবর পেয়ে এসআই মাসুদ রানার নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল সেখানে গিয়ে অনুষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া হয়।
এসআই মাসুদ রানা জানান, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সকল ধরনের গণজমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তারপরেও গণজমায়েত করে এই ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনের কারণে সেটি পণ্ড করে দেয়া হয়েছে। তবে আয়োজককে বলা হয়েছে অতিথিদের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দিতে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ