নগরীতে খেলোয়াড়কে ছুরিকাঘাত করে হত্যার অভিযোগ

আপডেট: এপ্রিল ১০, ২০২১, ১০:১০ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী নগরীতে মিজানুর রহমান ওরফে মিজান (৩৫) নামের এক খেলোয়াড়কে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় এ হত্যাকান্ড ঘটে। নিহত মিজান নগরীর হেতেমখাঁ সবজিপাড়া এলাকার মোহাম্মদ মিন্টু মিয়ার ছেলে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের পুলিশ ইনচার্জ রহুল আমিন জানান, শনিবার রাত ৮টার দিকে হাসপাতালে তার আত্মীয়-স্বজনরা নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার নগরীর নেসকো অফিসের পেছনে আড্ডা দিচ্ছিলো নিহত মিজান ও তার বন্ধুরা। এ সময় বন্ধুদের সাথে তার কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাকে ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়। স্থানীয়রা তাকে রামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে তাৎক্ষণিকভাবে মৃত ঘোষণা করেন।
আরও জানা গেছে, মিজানুর রহমান মিজান জাতীয় যুব হ্যান্ডবল দলে খেলেছেন। সেইসাথে তিনি রাজশাহী জেলা বাস্কেটবল দলের খেলোয়াড় ছিলেন। খেলার কারণে তিনি বাংলাদেশ আনসারে চাকরি পেয়েছিলেন।
রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ ভবনের পাশের গলিতে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছিলেন মিজানসহ অন্য বন্ধুরা। এসময় বন্ধুদের সাথে মোবাইলের লাইট বন্ধ করা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। তখন হেতম খাঁ এলাকার তার এক বন্ধু উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে তাকে গুরুতর আহত করে। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর তার তিন বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তারা জানিয়েছে মিজানের আরেক বন্ধু মাধব তাকে ছুরিকাঘাত করেছে। আহত মিজানকে হাসপাতালে মাধবসহ অন্য বন্ধুরা নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু মিজানের জ্ঞান না ফিরলে হাসপাতাল থেকে মাধম পালিয়ে যান। তাকে আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এব্যাপারে থানায় একটি মামলা হবে।