নগরীতে তিন ছিনতাইকারী গ্রেফতার

আপডেট: জানুয়ারি ২৮, ২০২২, ৯:৩০ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী মহানগরীতে তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে আরএমপি ডিবি পুলিশ। এসময় ছিনতাইকারীদের কাছ থেকে ছিনতাই হওয়া নগদ টাকা, মোবাইল ফোন, ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত একটি চাকু, জিআই পাইপ, হাতুড়ি ও চাইনিজ কুড়াল উদ্ধার হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার মো. ইব্রাহীম হোসেনের ছেলে আরিফ হোসেন (২০), এয়ারপোর্ট থানার বায়া বারইপাড়া গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে ইয়ামিন (২৪) ও আল আমিন (৩০)।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ফয়সাল (২৭) ও তার এক বন্ধু ঢাকায় চাকরির পরীক্ষা দিয়ে গত ৮ জানুয়ারি ২০২২ রাত ২ টায় ঢাকা থেকে রাজশাহীর শিরোইল বাসস্ট্যান্ডে এসে পৌঁছায়। বাসস্ট্যান্ডে কোনো অটোরিক্সা না পেয়ে তারা ফুটপাত দিয়ে বোয়ালিয়া মডেল থানার সাহাজিপাড়া হেতেমখাঁ এলাকায় তাদের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

রাত আড়াই টায় রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজের সামনে পৌঁছালে তিন ছিনতাইকারী মুখোশ পরে চাকুর ভয় দেখিয়ে তাদের কাছে যা কিছু আছে দিয়ে দিতে বলে। ফয়সাল ও তার বন্ধু তাদের কাছে থাকা মালামাল দিতে বিলম্ব করলে ছিনতাইকারীরা ফয়সালকে জিআই পাইপ দ্বারা মারপিট করে ও চাকু দ্বারা আঘাত করে জখম করে। এসময় ফয়সালের বন্ধুকেও মারপিট করে তাদের কাছে থাকা দুইটি মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা জোরপূর্বক কেড়ে নিয়ে ষট্টিতলা রোডের দিকে চলে যায়। ফয়সাল ও তার বন্ধু এ সংক্রান্তে উপ-পুলিশ কমিশনার ডিবি বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মহানগর ডিবি পুলিশের একটি বিশেষ টিম ফয়সাল ও তার বন্ধুর তথ্যের ভিত্তিতে ছিনতাইকারী গ্রেফতার অভিযানে নামে। পরবর্তীতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গত ২৭ জানুয়ারি দুপুর হতে মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ছিনতাইচক্রের সাথে জড়িত আসামী আরিফ হোসেন (২০), ইয়ামিন (২৪) ও ছিনতাইকৃত মোবাইল ফোন ব্যবহারের অপরাধে আল আমিন (৩০) কে গ্রেফতার করে।

এসময় ছিনতাইকারীদের কাছ থেকে ছিনতাই হওয়া নগদ টাকা, মোবাইল ফোন, ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত চাকু, জিআই পাইপ, হাতুড়ি ও চাইনিজ কুড়াল উদ্ধার হয়। এই মামলা অপর আসামী শাকিল পূর্বে রাজপাড়া থানা পুলিশ কর্তৃক গ্রেফতার হয়ে বর্তমানে জেল হাজতে আটক আছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন ধরে সংঘবদ্ধভাবে রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন লোকদের ধারালো চাকু-ছোরা-কিরিচ ইত্যাদির ভয়ভীতি দেখিয়ে নগদ অর্থ, মোবাইল ফোন ইত্যাদি ছিনতাই করে আসছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ