নগরীতে প্রতিদিন সাড়ে সাত হাজার কেজি খাদ্যদ্রব্য বিক্রির প্রস্তুতি সরবরাহ হবে চারটি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য

আপডেট: মে ১১, ২০১৭, ১২:১৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


আসন্ন রমজানকে সামনে রেখে ১৫ মে থেকে নগরীর পাঁচটি জায়গায় ট্রাকে খাদ্যদ্রব্য বিক্রি শুরু করবে টিসিবি। এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ স্থান নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট, লক্ষ্মীপুর, রেলগেট, নওদাপাড়া বাজার ও তালাইমারি এলাকায় এসব খাদ্যদ্রব্য ট্রাকে বিক্রি করা হবে। ১৫ মে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৬টা পর্যন্ত চিনি, সয়াবিন তেল, মশুর ডাল ও ছোলা প্রাথমিক অবস্থায় বিক্রি করা হবে। নগরীর নির্ধারিত পয়েন্টে প্রতি ট্রাকে এক হাজার ৫০০ কেজি করে মোট পাঁচটি ট্রাকে সাড়ে সাত হাজার খাদ্যদ্রব্য বিক্রি করবে টিসিবির ডিলারা।
টিসিবি রাজশাহী অঞ্চল কর্তৃপক্ষের তথ্য মতে, টিসিবি নগরীর মানুষের নিত্যপ্রয়োজনী চারটি খাদ্যদ্রব্য বিক্রি শুরু করবে। এসব পণ্যের সঙ্গে আপাতত খেজুরের বরাদ্দ এখনো আসে নি। পরবর্তীতে বরাদ্দ আসলে এসব পণ্যের সঙ্গে খেজুর বিক্রি করা হবে। পাঁচটি ট্রাকে প্রতিদিন সাড়ে ৭ হাজার কেজি খাদ্যদ্রব্য বিক্রির প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন টিসিবি কর্তৃপক্ষ। তবে শুক্রবার ছাড়া নগরীর পাঁচটি পয়েন্টে সপ্তাহের ৬ দিনই নির্ধারিত মূল্যে এসব খাদ্যদ্রব্য বিক্রি করবে ডিলাররা।
প্রতিকেজি চিনি ৫৫ টাকা, সয়াবিন তেল ৮৫ টাকা, ছোলা ৭০ টাকা, মশুর ডাল ৮০ টাকা দরে বিক্রি করা হবে বলে জানান টিসিবি কর্তৃপক্ষ। একজন ভোক্তা প্রতিদিন সর্বোচ্চ ৪ কেজি চিনি, ৩ কেজি মশুর ডাল, ৫ লিটার সয়াবিন তেল ও ৫ কেজি ছোলা ক্রয় করতে পারবেন। নগরীর জনগণের জন্য প্রতিদিন ট্রাকপ্রতি ৪০০ কেজি চিনি, ৩০০ কেজি মশুর ডাল, ৪০০ লিটার সয়াবিন তেল ও ৪০০ কেজি ছোলা বিক্রির জন্য বরাদ্দ থাকবে।
মহানগরীর ৩০ টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে ৮০ টি ডিলার টিসিবির খাদ্য পণ্য বিক্রি করবে। এরমধ্যে পাঁচটি স্থানে ট্রাকে খাদ্যদ্রব্য বিক্রি করা হবে। ট্রাকে বিক্রির জন্য এই পাঁচটি ডিলার ছাড়াও অবশিষ্ট বিভিন্ন এলাকার বাকি সাধারণ ডিলাররা টিসিবি খাদ্যদ্রব্য বিক্রি করতে পারবেন তাদের ডিলারের নির্দিষ্ট দোকানের মাধ্যমে। টিসিবি কর্তৃপক্ষ থেকে এসব ডিলারদের শুধুমাত্র একবার এক হাজার ৮০০ কেজি এসব পণ্য ক্রেতাদের নিকট বিক্রির জন্য বরাদ্দ দিবে।
টিসিবি রাজশাহী আঞ্চলের সুপার ভাইজার জামাল হোসেন বলেন, নগরীর গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি স্থানে টিসিবি পণ্য ট্রাকে করে বিক্রি করা হবে। এরমধ্যে চিনি, মশুর ডাল, ছোলা ও সয়াবিন তেল বিক্রি করা হবে। রাজশাহী অঞ্চলে মোট ৩৭৬ জন টিসিবির ডিলার খাদ্যদ্রব্য বিক্রি করে থাকে। এসব খাদ্যদ্রব্য বিক্রি মনিটরিং করবে রাজশাহী জেলা প্রশাসন, টিসিবি কর্তৃপক্ষ, জাতীয় ভোক্তা অধিদফতর ও বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দ প্রমুখ।
টিসিবির বিজ্ঞপ্তির তথ্যমতে, ঢাকায় ৩০টি স্থানে, চট্টগ্রামে ১০টি স্থানে, অন্যান্য বিভাগীয় শহরে ৫টি করে এবং বাকি জেলা সদরগুলোতে ২টি করে ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি করা হবে। এছাড়া টিসিবির নিজস্ব ১০টি খুচরা বিক্রয় কেন্দ্র ও ২ হাজার ৮১১ জন পরিবেশকের কাছ থেকেও ভোক্তারা পণ্য কিনতে পারবে। ঢাকাসহ সারা দেশের ১৮৫টি স্থানে ভ্রাম্যমাণ বিপণন কেন্দ্রে সয়াবিন তেল, চিনি, মশুর ডাল, ছোলা ও খেজুর বিক্রি করবে রাষ্ট্রীয় বিপণন সংস্থা টিসিবি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ