নগরীতে শীতের তীব্রতায় যাতায়াত কমেছে পথচারীদের!

আপডেট: জানুয়ারি ৩১, ২০২২, ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী মহানগরের রাস্তার পাশের ফুটপাতে, রেলওয়ে স্টেশনে, বাস স্টপসহ বাজারে কয়েকদিন থেকেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে শীতের তীব্রতায় সাধারণ মানুষের ভোগান্তি। ঠান্ডা বাতাসে কাবু হচ্ছে সাধারণ মানুষেরা। এদিকে শীতের তীব্রতায় সন্ধ্যা থেকে সকাল পর্যন্ত পথচারীদের চলাচল কমেছে নগরীতে।

রোববার (৩০ জানুয়রি) আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, শৈত্যপ্রবাহ বাড়ার সাথে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কমেই চলেছে। গত শনিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল। পরের দিন রোববার দশমিক ৩ ডিগ্রি ব্যবধানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কমে ৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে। এর ফলে আরও বেড়েছে শীতের তীব্রতার পরিমাণ।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক এএসএম গাউসউজ্জামান বলেন, অন্যদিকে রোববার (৩০ জানুয়ারি) সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা গত শনিবার রেকর্ড করা হয়েছিল ২১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এখানে ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস ব্যবধান অনুযায়ী তাপমাত্রা বেড়েছে। দিনের বেলায় শীত অনুভূত না হলেও রাতে জেঁকে বসছে শীত। রোববার সকালে বাতাসের আদ্রর্তা ছিল ৯৯ শতাংশ এবং সন্ধ্যায় বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ৬৬ শতাংশ।

তিনি আরও বলেন,দিনের বেলা তাপমাত্রা বাড়ছে আর রাতের বেলা পড়ছে খুব শীত। রোববার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে আসতে পারে। যা গতকাল ছিল ৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ব্যবধানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বাড়তে পারে। এর ফলে বাড়তে পারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।