নগরীতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার প্রধান আসামি বাপ্পা গ্রেফতার

আপডেট: August 6, 2020, 10:23 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক


অবশেষে গ্রেফতার হলো সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামি শাহ কামরুজ্জামান বাপ্পা। বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) বেলা তিনটার দিকে চন্দ্রিমা থানার এসআই পারভেজের নেতৃত্বে একটি দল তাকে শালবাগান এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। এর আগে দুপুরে বোয়ালিয়া থানায় দায়ের করা বাড়িতে হামলার ঘটনার অপর মামলায় জামিন নেয়।
বুধবার (৫ আগস্ট) রাতে বোয়ালিয়া থানায় বাপ্পার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার বাদি শাহ অমিত ফয়সাল তার মা শাহিন আক্তারসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে ছয় লাখ টাকা ছিনতাইয়ের একটি মামলা রেকর্ড করা হয়। এর বাদি বাপ্পার স্ত্রী তানজিয়া শারমিন। বাপ্পার বিরুদ্ধে মামলা রেকর্ডের ২৪ ঘণ্টা না পেরুতেই মামলাটি রেকর্ড করা হয়।
এ বিষয়ে বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিবারণচন্দ্র বর্মণ বলেন, তিনি নিজে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বাদি বিবাদি আত্মীয়। তাদের আগের জমি-জমা সংক্রান্ত মামলা রয়েছে। দুটি মামলা গ্রহণের বিষয়ে অনেক তদবির আসে। শেষ পর্যন্ত দুটি মামলাই তিনি রেকর্ড করেন। দুটির বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
গত ৩০ জুলাই নগরীর রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পাশের মার্কেটে এবং এর উল্টাদিকের বাড়িতে হামলা চালায় শাহ কামরুজ্জামান বাপ্পা এবং তার লোকজন। এসময় মার্কেটের ৮টি সিসি ক্যামেরা ভাংচুর করা হয়। ফুটেজে এ সময় এই ভাঙচুর এবং সেখানে বাপ্পার উপস্থিতি পাওয়া গেছে।
অভিযোগকারী শাহ অমিত ফয়সাল জানান, শাহ কামরুজ্জামান বাপ্পা তার চাচা। তার বাবা মারা যাওয়ার পরে সম্পত্তি বাটোয়ারা মামলা করার পর থেকে তার এবং তার মা শাহিনা শাহর ওপর অত্যাচার করে আসছে তার চাচা। এর আগেও কয়েকবার তাদের বাড়ি থেকে বের করে দেয়া হয়।