নগরীর উপকণ্ঠে ইট ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

আপডেট: মার্চ ৬, ২০১৭, ১২:১৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



নগরীর উপকণ্ঠে রওশন সরকার লিটন (৪৪) নামের এক ইটভাটা মালিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত শনিবার গভীর রাতে নগরীর মতিহার থানার কুখণ্ডি এলাকায় রাস্তার পাশে থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত ব্যবসায়ী লিটন পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ফসরুল আলম ভাদুর ছেলে। তবে নিহতের পরিবারের সদস্যদের দাবি, ব্যবসায়ী লিটনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার পর তার মরদেহ রাস্তার পাশে ফেলে রাখা হয়েছে।
পরে গতকাল রোববার সকালে ওই ব্যবসায়ীর মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। পরে ময়নাতদন্তের পর মরদেহ নিকটাত্মীয়দের কাছে বিকেলে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহতের পিতা আওয়ামী লীগ নেতা ফসরুল আলম ভাদু বলেন, আমরা শোকাহত। মামলার ব্যাপারে নিকটাত্মীয়দের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবো।
মতিহার থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার গভীর রাতে মতিহার থানা পুলিশ হাইওয়ে পুলিশের ফোনে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এসময় ব্যবসায়ী লিটন রাস্তার পার্শ্বে পড়ে ছিলেন। তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল পড়ে ছিলো মরদেহের পার্শ্বেই। এরপর রাতেই তারা নিহতের মরদেহ ও মোটরসাইকেল থানায় নিয়ে আসেন। গতকাল সকালে নিহতের পরিবারের লোকজন থানায় উপস্থিত হয়ে ঘটনাটি হত্যাকাণ্ড বলে দাবি করায় নিহতের মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
এ ব্যাপারে মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি, তদন্ত) মাহবুব আলম জানান, খবর পেয়ে রাতেই মতিহার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি নিজেও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনার তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্তদের শনাক্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ