নগরে কোরবানির মাংস কেনাবেচা

আপডেট: জুলাই ২৩, ২০২১, ৯:২৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


কোরবানি ইদের দিনে নগরীর কয়েকটি স্থানে বসেছিলো অস্থায়ী মাংস বিক্রির দোকান। এই দোকানের ক্রেতা-বিক্রেতারা ছিলেন- নগরীতে বসবাসরত নিম্ন ও মধ্যবিত্ত আয়ের মানুষ। তবে যারা মাংস বিক্রি করেছেন, ভিক্ষুক ও বস্তিবাসী। তারা মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে চেয়ে আনা মাংসগুলো বিক্রি করেছেন।
জানা গেছে- ইদের দিন বিকেলের পরে মাংসের দোকান বসে নগরীর কামারুজ্জামান চত্বর (গোরহাঙ্গা রেলগেট), নিউ মার্কেট, রেলওয়ে স্টেশনের সামনে। সেখানে ভ্যান গাড়িতে করে বিক্রি করা হয় কোরবানি করা পশুর মাংস। এই মাংসগুলো পবার নওহাটা, কাটখালীর হরিয়ানসহ আশেপাশের এলাকায় বসবাসরত বিভিন্ন বসতির মানুষ, ফকির ও নিম্ন আয়ের মানুষ বিক্রি করেছেন।
মাংস বিক্রেতা ইউসুফ ও শামসুল ইসলাম জানান, মাংস তারা কিনছেন সাড়ে ৪০০ থেকে ৪৮০ টাকা দরে। বিক্রি করছেন ৫০০ থেকে সাড়ে ৫০০ টাকা দরে।
মজিবুর নামের এক মাংস ক্রেতা জানান, কোরবানি দিয়েছি ছাগল। স্বজনদের দিতে হবে তাই গরুর মাংস কিনলাম।
ফাইসাল নামের এক ব্যক্তি জানান, রিক্সা চালাই। বৌ (স্ত্রী) ও মেয়ে মানুষের বাড়ি বাড়ি ঘুরে সাড়ে ৫ কেজি মাংস পেয়েছে। সবই তো খেলে হবে না। খাওয়ার জন্য দুই কেজি রাখলাম। বাকিটা বিক্রি করে দিলাম। লকডাউনের মধ্যে চাল কিনে খেতে হবে।