নতুন উচ্চতায় অধিনায়ক কোহলি

আপডেট: ডিসেম্বর ১২, ২০১৬, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



ব্যাট হাতে নামছেন ২২ গজে, রান করছেন অবলীলায়, আর প্রতিদিনই যেন ধরা দিচ্ছে দারুণ সব মাইলফলক। নিত্য নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন বিরাট কোহলি। এবার একটি জায়গায় ছাড়িয়ে গেলেন ভারতের ইতিহাসের সব অধিনায়ককে। অধিনায়ক হিসেবে খেললেন ভারতের সর্বোচ্চ ইনিংস!
১৪৭ রান নিয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মুম্বাই টেস্টের চতুর্থ দিন শুরু করেছিলেন কোহলি। আউট হয়েছেন ২৩৫ রানে। ভারতের কোনো অধিনায়কের সবচেয়ে বড় টেস্ট ইনিংস এটিই। এই বছর এটি কোহলির তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরি। ভারতের হয়ে এক বছরে কোনো ব্যাটসম্যানের তিন ডাবল সেঞ্চুরির কীর্তিও প্রথম গড়লেন তিনি।
অধিনায়ক হিসেবে কোহলি ছাড়িয়ে গেছেন তার পূর্বসূরি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। ২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চেন্নাই টেস্টে ২২৪ করেছিলেন ধোনি। তার আগে রেকর্ডটি ছিল শচিন টেন্ডুলকারের। কোহলির সঙ্গে নিত্য তুলনা চলছে যার, সেই টেন্ডুলকার অধিনায়ক হিসেবে ১৯৯৯ সালে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে আহমেদাবাদে করেছিলেন ২১৭। এক পঞ্জিকাবর্ষে তিনটি ডাবল সেঞ্চুরিতে কোহলি নাম লিখিয়েছেন অভিজাত এক ক্লাবে, যেটির সদস্য সংখ্যা কোহলিকে নিয়ে মাত্র পাঁচ জন! এক বছরে তিনটি ডাবল সেঞ্চুরি প্রথম করেছিলেন স্যার ডন ব্র্যাডম্যান। নিজেকে চেনালেন যে বছর, সেই ১৯৩০ সালে এই কীর্তি গড়েছিলেন ব্র্যাডম্যান। দীর্ঘ সাত দশক আর সেটি স্পর্শ করতে পারেনি কেউ। ২০০৩ সালে অবশেষে করতে পারলেন এমন একজন, যাকে মনে করা হয় ব্র্যাডম্যানের পর অস্ট্রেলিয়ার সেরা। সেই বছর তিনটি ডাবল সেঞ্চুরি উপহার দিলেন রিকি পন্টিং।
২০১২ সালে ব্র্যাডম্যান ও পন্টিংকেও ছাপিয়ে চারটি ডাবল সেঞ্চুরিতে নতুন রেকর্ড গড়লেন মাইকেল ক্লার্ক। ২০১৪ সালে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম করলেন তিনটি ডাবল। এবার পাশে বসলেন কোহলি। এই বছর খেলবেন আরও একটি টেস্ট। ক্লার্কের পাশে বসার সুযোগও তাই থাকছে।
শুধু ব্যক্তিগত অর্জনই নয়, রোববার জুটির একটি রেকর্ডেও নাম লিখিয়েছেন কোহলি। জয়ন্ত যাদবের সঙ্গে গড়েছেন ২৪১ রানের জুটি, অষ্টম উইকেটে যেটি ভারতের প্রথম দুইশ’ রানের জুটি। ১৯৯৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কলকাতায় মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন ও অনিল কুম্বলের ১৬১ ছিল ভারতের আগের সেরা। নয় নম্বরে নেমে প্রথম ভারতীয় হিসেবে সেঞ্চুরি উপহার দিয়েছেন জয়ন্ত (১০৪)। নেতৃত্ব, রানের বন্যা, সতীর্থদের সাফল্য আর দলের জয়রথ, সব মিলিয়ে কোহলির ক্যারিয়ারে চলছে সোনালি সময়।-বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ