নতুন বইয়ের গন্ধে মোহিত শিশুপ্রাণ || স্কুলে স্কুলে পাঠ্যপুস্তক উৎসব

আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০১৭, ১২:২৪ পূর্বাহ্ণ

বুলবুল হাবিব



নতুন বই, মলাট-পাতায় নতুনের ঘ্রাণ। এমন নতুন বই দিয়েই বছর শুরু করল সারাদেশের মতো রাজশাহী অঞ্চলের শিশুরাও। গতকাল রোববার নগরীর প্রতিটি স্কুলে স্কুলে অনুষ্ঠিত হয় এ পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসব। এ উৎসব হয় মাদ্রাসা, কিন্ডারগার্টেন ও কারিগরিসহ সব ক্যাটাগরির প্রতিষ্ঠানে। প্রথম শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণ করা হয় এই বই।
শীতের কুয়াশাও হার মানাতে পারেনি শিক্ষার্থীদের। প্রত্যেক শিক্ষার্থী নিজ নিজ স্কুলের ইউনিফর্ম পরে স্কুলে হাজির হয় নির্ধারিত সময়ে। স্কুলে আসে খালি হাতে। বাসায় ফেরে হাত ভর্তি বই নিয়ে।
সকাল ১০টায় জেলা শিক্ষা অফিসের উদ্যোগে রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসব হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে নগরীতে এই পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসবের উদ্বোধন করেন, রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা। রাজশাহীর জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দিনের সভাপতিত্বে বই বিতরণ উৎসবে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক প্রফেসর ড. আবদুল মান্নান সরকার ও উপপরিচালক ড. শরমিন ফেরদৌস চৌধুরী। এছাড়া নগরীর বিভিন্ন স্কুলে বই বিতরণ উৎসবের উদ্বোধন করেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।
প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অধিফতর সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী বিভাগে এবছর মাধ্যমিকে ২ কোটি ৯০ লাখ ও প্রাথমিকে ১ কোটি ১৫ লাখ বই শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে মাধ্যমিকে রাজশাহী জেলার ৭৭৯টি স্কুল ও মাদ্রাসা মিলে বই বিতরণ করা হয়েছে ৪১ লাখ ৭৭ হাজার ৭৭৭ কপি। জেলায় মাধ্যমিকে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ লাখ দুই হাজার ৫৬০ জন।
প্রাথমিকে রাজশাহীর বিভাগের ১৪ হাজার ৬৫৯টি স্কুলে বই বিতরণ করা হয়েছে এক কোটি ১৫ লাখ ৩৮ হাজার ২৬১টি। জেলার ১৮৫০টি স্কুলের ৩ লাখ ২২ হাজার ৭৬৩ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে বই বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ১৫ লাখ ১৯ হাজার ৭৫৮ কপি হলেও বই বিতরণ করা হয়েছে ১১ লাখ ৯৮ হাজার ১০২টি। বাকি বইগুলো বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার্থী ভর্তির পর বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কাশেম।
রাজশাহী বিভাগের উপপরিচালক আবুল খায়ের জানান, প্রাথমিক, কিন্ডারগার্টেন, কেজি স্কুল, বেসরকারি স্কুল অর্থাৎ সব ক্যাটাগরির স্কুল মিলিয়ে এই বই বিতরণ করা হয়েছে।
বই পেয়ে খুশি রাজশাহী গভ. ল্যাবরেটরি স্কুলের শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ আল আবির। আবির বলে, ক্লাস এইটে জিপিএ-৫ পেয়েছি। নবম শ্রেণিতে উঠেই সব পেলাম। খুব খুশি লাগছে। নতুন বই পেয়ে খুশি রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের সাদমান ও সাইয়ান।


রাবি : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ রাসেল মডেল স্কুল ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজে বই বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে শেখ রাসেল মডেল স্কুল চত্ত্বরে বই বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রাবি স্কুলের অধ্যক্ষ প্রফেসর আলী আহসান ও শেখ রাসেল মডেল স্কুলে অধ্যক্ষ মোমেনা জীনাত-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, রাবির উপাচার্য অধ্যাপক মুহাম্মদ মিজানউদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর সায়েন উদ্দিন আহমদ ও স্কুল দুটির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর আনসার উদ্দিন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, আজকের শিশুরাই হবে আগামী দিনের বাংলাদেশ গড়ার কুশলী কারিগর। তাদের যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব আমাদের সবার। তাদের লেখাপড়াকে আনন্দময় করে তুলতে বছরের প্রথম দিনটিতে নতুন ক্লাসের বই তাদের হাতে তুলে দিতে সরকার যে উদ্যোগ নিয়েছে তা সফল করার দায়িত্ব আমাদের সবার। শিক্ষার্থীদের জীবনের প্রতিটি দিনই হোক উৎসবমুখর। তবেই হবে তাদের জীবন আনন্দময়।’
এসময় উপস্থিত ছিলেন, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মুহাম্মদ এন্তাজুল হক, ছাত্র-উপদেষ্টা অধ্যাপক মিজানুর রহমান, প্রক্টর অধ্যাপক মুজিবুল হক আজাদ খান, স্কুল দুটির উপাধ্যক্ষ ও শিক্ষকবৃন্দ প্রমুখ।
হাউজিং এস্টেট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় : গতকাল সকালে পাঠ্যপুস্তক দিবসে নগরীর হাউজিং এস্টেট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, সাংসদ বেগম আখতার জাহান। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিদ্যালয়ের সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা তাজুল ইসলাম, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সমাজসেবক ফারুক হোসেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন, হাউজিং এস্টেট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুল ইসলাম।
বক্তব্যে সাংসদ বলেন, ভাল মানুষ হতে হলে অবশ্যই মন দিয়ে লেখাপড়া করতে হবে। লেখাপড়ার কোন বিকল্প নাই। লেখাপড়া শিখে আলোকিত মানুষ হয়ে দেশের জন্য কাজ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল বছরে প্রথম দিরে বই পাওয়া। আগে বছরের মাঝে শিক্ষার্থীরা বই পেতনা। কিন্তু এখন বছরের প্রথম দিনেই তোমাদের হাতে বই তুলে দিতে পারছি।
তিনি বলেন, ২০১৬ সাল বাংলাদেশের অনেক অর্জনের একটি সাল। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের রোল মডেল। পরে সাংসদ বেগম আখতার জাহান পবার নওহাটা কেয়ারওয়াচ প্রিপারেটরী স্কুল বই বিতরণ উৎসবে প্রধান অতিথি থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করেন।
হামিদপুর নওদাপাড়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় : গতকাল রোববার হামিদপুর নওদাপাড়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান অডিটোরিয়ামে শিক্ষার্থীদের মাঝে ‘পাঠ্যপুস্তক উৎসব’ অনুষ্ঠানে বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হয়। বাংলাদেশ সরকারের দেয়া প্রদত্ত ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত বিনামূল্যে এ বই বিতরণ করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সরিফুল ইসলাম বাবু। প্রধান অতিথি ছিলেন, জাতীয় শ্রেষ্ঠ শিক্ষক-২০১৫ অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাহাদত আলী শাহু। অতিথি ছিলেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য ইন্তাজ আলী, আশরাফ আলী, সাজেদা হকসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।
মেহেরচন্ডী উচ্চ বিদ্যালয় : রবিবার মেহেরচন্ডী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভবনে ‘পাঠ্যপুস্তক উৎসব’ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সরকার প্রদত্ত ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, মিনাজ্জুল হোসেন বাবু ও মাসুদা মল্লিক কমি সাবেক মহিলা কাউন্সিলর জোন-১০। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রাসিকের সাবেক দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সরিফুল ইসলাম বাবু। অতিথি ছিলেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য মকবুল হোসেনসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। সভা পরিচালনা করেন, আল মামুন।
রাজশাহী বিবি হিন্দু একাডেমি : রাজশাহী বিবি হিন্দু একাডেমিতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হয়েছে। বক্তব্য দেন, বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির অন্যতম সদস্য ডাবলু সরকার ও জেলা শিক্ষা অফিসার রফিকুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য দেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাজেন্দ্র নাথ সরকার। পরিচালনা করেন, বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক অনল কুমার মন্ডল। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিদ্যালয় কমিটির সদস্য আনন্দ ঘোষসহ সদস্যবৃন্দ।
বিদিরপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় : নবীন বরণ ও পাঠ্যপুস্তুক উৎসব দিবস উদযাপন উপলক্ষে বিদিরপুর প্রথমিক বিদ্যালয়ে র‌্যালি ও অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বেলা ১১ টায় র‌্যালি শেষে সংক্ষিপ্ত আলোচনার পারে শুরু হয় পাঠ্যপুস্তক প্রদান। অভিভাবকেদর উপস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেন, বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আনম ওয়াহেদুল আলম জুম্মা, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশরাফ আলি তুহিনসহ অন্যান্যরা। আলোচনায় বক্তারা বছরের শুরুতেই শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়ার উদ্যোগকে অভিনন্দন জানিয়ে শিক্ষার মান. উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি স্থানীয় উদ্যোগের প্রয়াজনীয়তার উল্লেখ করেন।
খাদেমুন ইসলাম বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজ: বই উৎসব উপলক্ষে সকালে অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন, গবেষণা কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম সরকার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, বিদ্যালয় পরিচলনা কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাদী। এসময় বক্তব্য দেন, অধ্যক্ষ রনজিৎ কুমার সাহা, সহকারী প্রধান শিক্ষক রতন কুমার সাহা। অনুষ্ঠান সঞ্চলনা করেন, সহকারী শিক্ষক খুরসেদা খানম।
সিটি আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ: বই উৎসব উপলক্ষে সকালে অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর উপকমিশনার তানভীর হায়দার চৌধুরী। এসময় অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ: বই উৎসব উপলক্ষে সকালে অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, বোর্ড সচিব ড. আনারুল হক প্রামানিক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ তাইফুর রহমান ও সঞ্চালনা করেন, বাংলা বিষয়ের শিক্ষক মাহফুজুর রহমান ও মাহফজা খাতুন।
রাজশাহী মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ: বই উৎসব উপলক্ষে সকালে অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ মনির হোসেন (সার্বিক)। এতে সভাপতিত্ব করেন, অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান।
আটকোষী উচ্চ বিদ্যালয়: বই উৎসব উপলক্ষে সকালে অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল মান্নান। এসময় বক্তব্যে দেন, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহমেদ ও প্রধান শিক্ষক শিউলী খাতুন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, সমাজসেবক মোনাওয়ার আলী।
মহিবাথান আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় : বিদ্যালয়টির প্রাঙ্গণে আনন্দঘন পরিবেশে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ করা হয়েছে। এই বই বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এ কে মাসুদ, প্রধান শিক্ষক মাহাবুব-উল-আলম, সমাজসেবক গোলাম মর্তুজা স্বপন, সদস্য মিরা খাতুন ও মধু মিয়াসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারী।
সূর্যকণা উচ্চ বিদ্যালয় : নগরীর শিরোইলে অবস্থিত স্কুলটিতে বই বিতরণ উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম উল আযীম। এ সময় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম, সহকারী প্রধান শিক্ষক আব্দুল খালেকসহ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বরইকুড়ীগ্রামে আব্দুল গফুর মাস্টার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়: বই বিতরণ উপলক্ষে আলোচনা সভায় পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সেলিম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, বেস্টওয়ে গ্রুপের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, পবা উপজেলার ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল হক, এশিয়ান টিভির নির্বাহী পরিচালক কেএম আব্দুল্লাহ আল মুরাদ, নওহাটা পৌর মেয়র শেখ মোহাম্মদ মকবুল হোসেন, পবার সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজ্জাকুল ইসলাম প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ