বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

‘নাগরিকত্ব বিল জাতিগত নিধনের অপচেষ্টা, সংবিধানবিরোধী’

আপডেট: December 12, 2019, 1:16 am

সোনার দেশ ডেস্ক


ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল বাঙালিবিরোধী; সাম্প্রদায়িক। দেশের সংবিধান বিরোধী। সংবিধানের ভিত্তির ওপর আঘাত করে বিলটি। এই বিল ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের ওপর আক্রমণ করে। এমনকি বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রের ভাবমূর্তি নষ্ট করে এই বিল লোকসভায় পাস করা হয়েছে বলে মন্তব্যে সরব হয়েছেন বিরোধী দলের নেতারা।
বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সাবেক কংগ্রেস প্রধান রাহুল গান্ধী নিজের মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটে বলেন, এই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ সরকারের জাতিগতভাবে দেশের উত্তর-পূর্বকে নিধনের অপচেষ্টা।
তিনি বলেন, এটি উত্তর-পূর্বাঞ্চল তথা গোটা দেশের জীবনযাত্রার ওপর আঘাত করবে। এই ধারণা একটি অপরাধমূলক আক্রমণ। উত্তর-পূর্বসহ গোটা দেশের জনগণের সঙ্গে আমিও সংহতি জানাই। তাদের সেবায় আমি আছি।
এদিকে, নির্ধারিত দিন বুধবার তুমুল বিতর্কের মধ্যেই রাজ্যসভায় উঠেছে এই বিল। হবে এবার উচ্চকক্ষের ভোটাভুটি।
২৪৫ আসনের রাজ্যসভার পাঁচটি আসন এবার খালি। এ হিসেবে ২৪০ এর মধ্যে ১২১ আসন পেলেই সরকার পক্ষ পাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা। যদিও এর বিরোধিতা করবে বিরোধী শিবির। এরপরও বিজেপি সরকার ১৩১টি আসন পাবে বলে দলটি সম্ভাবনা পেয়েছে মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর)।
লোকসভার পর এবার রাজ্যসভায়ও বিলটিকে পাস করাতে মরিয়া সরকার পক্ষ। যদিও এর আগে একবার বিলটি আটকে গিয়েছিল রাজ্যসভায়। যে কারণে সরকারের এই অনড় অবস্থান।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ