নাটোরে আরও ৯ ইমো হ্যাকার প্রতারক ইমো আইডি হ্যাক করে অর্থ হাতিয়ে নিতো তারা

আপডেট: মে ২২, ২০২২, ৯:৪২ অপরাহ্ণ

নাটোর প্রতিনিধি:


নাটোরের লালপুর থেকে আরও ৯ জন ইমো হ্যাকার প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার (২২ মে ) দুপুর আড়াইটার দিকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা।

প্রেস ব্রিফিংয়ে থেকে জানান হয়, লালপুর থানার একটা জিডির সূত্র ধরে লালপুর থানা পুলিশ শনিবার (২১ মে) রাতে সোয়া দশটার দিকে উপজেলার জোতগৌরী গ্রামের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান সময় ইমুর মাধ্যমে প্রতারণাকালে তাদেরকে গ্রেফতার এবং তাদের ইমু হ্যাকিং এর কাজে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন জব্দ করে পুলিশ।

পুলিশ সুপার জানান, এ সকল প্রতারক সফটওয়্যার এর মাধ্যমে ইমু অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে মেয়ে পুরুষের ছদ্মবেশ ধারণ করে পরিচয় গোপন করে ছবি ও ভিডিও প্রদর্শন করে। পরে প্রতারণার মাধ্যমে কৌশলে তাদের কাছে থেকে অর্থ আদায় করে। বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীরা সাবধানতা অবলম্বন না করলে এই ধরনের ঘটনা রোধ করা খুবই কঠিন হয়ে যাবে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো উপজেলার গ-বিল গ্রামের আকবর আলীর ছেলে সাহেব ইসলাম(২১), মনিহার পুরের জাকির হোসেনের ছেলে মো. শাকিল(২২) মোহরকয়া গ্রামের ইনসার ম-লের ছেলে সাহাবুল ইসলাম(৩৫) মনিহার পুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে রুবেল(২৭) বাকনাই গ্রামের আরজ আলীর ছেলে রবিউল ইসলাম ম্যাগনেট(৪২) মনিহারপুর গ্রামের চঞ্চল কুমারের ছেলে চন্দন কুমার(২৩) মহারাজপুর গ্রামের মৃত জব্বার মন্ডল এর ছেলে সিরাজুল ইসলাম(৩২) মহারাজপুর গ্রামের নাজিম ম-লের ছেলে আশরাফুল ইসলাম(২৫) মহাজপুর গ্রামের মোখলেসুর রহমানের ছেলে রাজু হোসেন(১৭)কে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ