নাটোরে আ’লীগের সাত নেতাকে হত্যার হুমকি || ১৫দিনেও পর্দার আড়ালে হুমকিদাতা

আপডেট: জুলাই ৩, ২০১৭, ১:০১ পূর্বাহ্ণ

নাটোর প্রতিনিধি


১৫দিনেও জানা যায়নি হুমকিদাতা কে বা কারা। পর্দার আড়ালেই রয়ে গেছে হুমকিদাতা। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে হুমকিপ্রাপ্ত নেতারা। হুমকিদাতার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানিয়েছে হুমকিপ্রাপ্ত নেতারা।
উল্লেখ্য, গত মাসের ১৭ তারিখ শনিবার দুপুরে নাটোর প্রেসক্লাবের দরজার সামনে অজ্ঞাত কেউ ওই চিঠি  ফেলে রেখে যায়। চিঠিতে নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজানসহ আ’লীগের ৭ নেতা-কর্মীকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়। হুমকি প্রাপ্তরা হলেন, নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান, জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিউল আযম স্বপন, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুুল্লাহ আল সাকিব বাকী, ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শাহীন, জেলা তাঁতীলীগ সভাপতি মশিউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক, ৩নম্বর দিঘাপতিয়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী শরিফুল ইসলাম বিদ্যুৎ। সাদা খামের ভেতর থাকা একটি চিঠিতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজানসহ ৭ নেতাকর্মীকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান বাদী হয়ে সকলের নিরাপত্তার জন্য সদর থানায় একটি জিডিও করেন।
এ বিষয়ে শরিফুল ইসলাম রমজান জানান, হুমকি দেয়া ১৫দিন পার হলেও জানা যায়নি কারা হুমকিদাতা, তবে আমি ভীত নই। শেখ মুজিবকে হত্যা করে যারা সুবিধা ভোগ করতে চেয়েছিল, ঠিক তেমনি আমাকে হত্যা করে কারা সুবিধা ভোগ করতে চায় তা নাটোরবাসী জানে। জাতীয় নির্বাচন করার ইচ্ছা পোষণ করার পর থেকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দিক থেকে হুমকি দিয়ে আসছিল। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের গ্রেফতারসহ শাস্তি দাবি করেন তিনি।
হুমকিপ্রাপ্তদের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ,  জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শাহিন বলেন, আমি দীর্ঘদিন যাবৎ উপজেলা চেয়ারম্যান রমজান চাচার সাথে উঠা-বসা করি, তখন থেকেই বিভিন্নজন বিভিন্ন দিক থেকে হুমকি দিয়ে আসছিল। সর্বশেষ কাফনের কাপড়ে আমাদের হুমকি দেয়া হয়, তবে আমি এতে ভীত নই। রাজনীতিতে বাঁধা আসবেই, সব বাঁধা অতিক্রম করেই পথ চলতে হবে। হুমকিদাতা আওয়ামী লীগেরই লোকজনই এবং তাদের বিপরীত গ্রুপ বলে জানান শাহীন।
জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিউল আযম স্বপন জানান, হুমকিদাতা যেই হোক তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছি।
এ বিষয়ে নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সিকদার মশিউর রহমান জানান, এখনো হুমকিদাতাদের চিহ্নিত করা যায়নি, তবে  যেই হোক তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ