নাটোরে দুই প্রকৌশলীকে কুপিয়ে জখম

আপডেট: এপ্রিল ২৪, ২০১৭, ১২:১২ পূর্বাহ্ণ

নাটোর অফিস


নাটোর সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কার্যালয়ের দুই প্রকৌশলীকে কুপিয়ে জখম করেছে দুবর্ৃৃত্তরা। গতকাল রোববার সাড়ে ৫টার দিকে সদর উপজেলার হালসা ফুলসড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহতরা হলেন সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ণ কর্মকর্তা কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী আবু সাইদ (৩১) এবং নলডাঙ্গা উপজেলার উপসহকারী প্রকৌশলী মাসুদ রানা (৩৬)। তাদেরকে গুরুতর জখম অবস্থায় নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি আহত আবু সাইদ জানান, রোববার বিকেলে ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে হালসা ইউনিয়নের পারহালসা জহুরুল ইসলামের বাড়ির পার্শে নির্মিত ব্রিজের ঢালাই কাজ দেখে মোটরসাইকেল যোগে নাটোরে ফিরছিলেন। এসময় ফুলসড়র এলাকার আবুল খায়ের কলেজের সামনে একটি মোটরসাইকেলে তিন যুবক পিছন থেকে এসে এলোপাথারি কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে আবু সাইদের পিঠে এবং মাসুদ রানার ডান হাতে গুরুতর জখম হয়েছে। পরে খবর পাওয়ার পর হাসপাতালে ছুটে যান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আরিফ মোহাম্মাদ, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আয়েশা সিদ্দিকাসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা।
নাটোর সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আয়েশা সিদ্দিকা জানান, শহীদ মিয়াজি কন্সট্রাকশনের ঠিকাদার যুবলীগ নেতা মিলন হোসেনের ব্রিজের ঢালাই কাজ দেখে অফিসে ফিরছিলেন দুই প্রকৌশলী। এসময় তিনজন দুর্বৃত্তরা তাদের পথরোধ করে কুপিয়ে চলে যায়। এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আরিফ মোহাম্মাদ জানান, কি কারণে তাদের কুপিয়ে জখম করা হয়েছে বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয়। তবে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ বিষয়ে নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, খবর পাওয়ার পর হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।