নাটোরে দুই সবজি ব্যবসায়ী ও এক ডায়গনস্টিকে জরিমানা

আপডেট: মার্চ ২৩, ২০২০, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ

নাটোর প্রতিনিধি


নাটোরের নিচাবাজার এলাকায় নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য মনিটর করার সময় পেঁয়াজ ও রশুনের দাম বেশী রাখায় দুই ব্যবসায়ীকে আট হাজার টাকা ও জামান ডায়গনস্টিকের ৫ হাজার টাকা জরিমানা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
নাটোরের অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক আশরাফুল ইসলাম ও সদরের সহকারী কমিশনার( ভূমি ) আবু হাসান গতকাল রোববার দুপুরের পৃথক ভাবে এই জরিমানা করেন।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আশরাফুল ইসলাম জানান, সরকারের নির্দেশনায় ও জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী করোনার অজুহাতে যাতে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়াতে না পারে সেকারণে নিয়মিত বাজার মনিটরিং শুরু করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে নিচাবাজার এলাকায় বেশী দামে রশুন বিক্রি প্রমাণিত হওয়ায় ইয়ার আলী নামে একজন সবজি ব্যবসায়ীকে ৫ হাজার টাকা এবং উজ্জল নামে অপর এক ব্যবসায়ীকে বেশী দামে পেঁয়াজ বিক্রির অপরাধে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আশরাফুল ইসলাম জানান, এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।
অপরদিকে নাটোরে মেয়াদ উত্তির্ণ লাইসেন্স দিয়ে ডায়গনস্টিক ব্যবসা করায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল রোববার দুপুরে শহরের আলাইপুর এলাকায় জামান ডায়গনস্টিক স্টোরের মালিক শহিদুজ্জামান রাজের এই জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নাটোর সদরের সহকারী কমিশনার(ভূমি ) আবু হাসান।
নাটোর সদরের সহকারী কমিশনার(ভূমি ) আবু হাসান জানান, জামান ডায়গনস্টিক সেন্টারের লাইসেন্সের মেয়াদ উত্তির্ণ হয়ে গেছে কয়েক বছর আগে। তিনি লাইসেন্স রিনিউ না করেই অবৈধভাবে ডায়গনস্টিক ব্যবসা করে আসছিলেন। এ কারণে জামান ডায়গনস্টিক সেন্টারের ৫ হাজার টাকা জরিমানাসহ ডায়গনস্টিকের সকল কার্যক্রম বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়।