নাটোরে বিএনপি সমাবেশে হামলার ঘটনায় এমপির ভাতিজাসহ ৬৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট: জুলাই ৬, ২০২৪, ১০:২৬ অপরাহ্ণ

নাটোরে বিএনপি সমাবেশে হামলার ঘটনায় এমপির

নাটোর প্রতিনিধি:


নাটোরে বিএনপির সমাবেশে হামলার ও সমাবেশ লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ ও গুলি ছোড়ার পরে জেলা বিএনপির আহবায়ক শহিদুল ইসলাম বাচ্চুকে কুপিয়ে তার ডান হাতের কজি¦ প্রায় বিছিন্ন করা ঘটনায় স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল এর ভাতিজা রাশিদুল ইসলাম কোয়েলকে প্রধান অভিযুক্ত করে ৬৬ জনের নামে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার (৬ জুলাই) জেলা বিএনপির আহবায়ক আহত শহিদুল ইসলাম বাচ্চুর স্ত্রী সুলতানা পারভীন বাদী হয়ে জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি আমিরুল ইসলাম জনি, গোলাম কিবরিয়া সেলিমসহ ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরো ৪০-৫০ জনকে আসামি করে নাটোর থানায় মামলাটি করা হয়। এ বিষয়টি জেলা পুলিশ নিশ্চিত করেছেন। তবে এঘনায় এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি। এদিকে ঘটনার চারদিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ ক্উাকে আটক না করায় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। আর পুলিশ বলছেন, হামলায় যারা সরাসরি জরিত তাদের বেশ কিছু তথ্য প্রমাণ পুলিশের হাতে রয়েছে। ইতোমধ্যে আমরা এজাহারটি হাতে পেয়েছি দ্রুত সময়ের মধ্যে এর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অন্যদিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক ভূমি উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলছেন, জেলা বিএনপির বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ এবং জেলার নেতা শহীদুল ইসলাম বাচ্চু কে যে ভাবে হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে কোপানো হয়েছে। তাকে বাঁচানোর জন্য নাটোর, রাজশাহী এবং ঢাকায় চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় মামলা করতে বিলম্ব হয়ে্েছ। তাছারা কে বাদী হবে তা নির্ধারণ করতে হয়েছে। এছাড়াও শহীদুল ইসলাম বাচ্চু যে অবস্থা তার পক্ষে মামলার এজাহারে স্বাক্ষর করা সম্ভব হয় নি।

মামলার বাদী শহিদুল ইসলাম বাচ্চুর স্ত্রী সুলতানা পারভীন বলেন, শহীদুল ইসলাম বাচ্চু বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ। গোটা উত্তরাঞ্চলে তাকে এক নামেই সবাই চেনেন। জেলার একজন প্রধান নেতা, তার গায়ে এমন আদিম বন্য হিংস্রতায় আক্রমণ করা হয়েছে। তার হাত-পা, মুখ ক্ষতবিক্ষত করে তাকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে। আমি এঘটনার সাথে জড়িত আসামীদের গ্রেফতার ও সুষ্ঠু বিচার চাই।

উল্লেখ্য, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে গত বুধবার সকালে নাটোর জেলা বিএনপির কার্যালয়ে সমাবেশ ছিল। সমাবেশে যোগ দিতে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম বাচ্চু যাচ্ছিলেন। এ সময় শহরের সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে কয়েকজন লোক তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এতে তার পা-হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয় এবং তার ডান হাতের কব্জি প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়।

নাটোরের পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম (পিপিএম বার) জানান, বিএনপি নেতা আহত শহিদুল ইসলাম বাচ্চুর বাদী হয়ে নাটোর থানায় একটি এজাহার দিয়েছে। এজাহারটি আমরা হাতে পেয়েই আইগত ব্যাবস্থা গ্রহণে কাজটি করছি। খুব শিগগিরই আমরা আসামীদের আটক করতে সক্ষম হবো।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ