নাটোরে যৌনকর্মী হিসেবে নারীকে পাচারের চেষ্টা ধর্ষণ ও প্রতারণা মামলায় পাচারকারী গ্রেফতার

আপডেট: ডিসেম্বর ২২, ২০২৩, ৪:৪২ অপরাহ্ণ

নাটোর প্রতিনিধি :


নাটোরের লালপুর থেকে সরকারি কর্মচারীর পরিচয়ে মানব পাচার, ধর্ষণ ও প্রতারণা মামলার মূল পরিকল্পনাকারী আবুল কালাম আজাদ ওরফে শাহারিয়ার নাফিজ ইমনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহসবপতিবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭:৩০ টার দিকে লালপুর বাজারের হাজী মার্কেট এলাকা হতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আবুল কালাম আজাদ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদি গ্রামের মৃত আয়নাল হকের ছেলে ।

র‌্যাব-৫ সূত্র জানায়,আসামী আবুল কালাম আজাদ (৪৫) পরিচয় গোপন করে ভিকটিমের সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করে ধর্ষণ ও পরবর্তীতে প্রতারণামূলক নাটক সাজিয়ে বিবাহ করে। পরে ভিকটিমকে পতিতালয়ে নিয়ে যৌনকর্মী হিসেবে টাকার বিনিমেয়ে পাচারের চেষ্টা করে।

ভিকটিমের মা বিষয়টি জানতে পেরে রাজবাড়ীর পাংশা থানায় ধর্ষণ, প্রতারণা এবং পাচার সংক্রান্তে একটি মামলা দায়ের করেন। এই ঘটনার পর হতেই আবুল কালাম আজাদ আত্মগোপনে চলে যায়।

কোম্পানী অধিনায়ক সঞ্জয় কুমার সরকারের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি অপারেশন দল ২১ ডিসেম্বর উপজেলার হাজী মার্কেট এলাকা হতে তাকে গ্রেফতার করে। পরে আসামিকে পাংশা থানায় হস্তান্তর করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Exit mobile version