নাটোরে সিআইডির পরিচয় দিয়ে চাঁদা দাবি, গ্রেফতার এক

আপডেট: জুলাই ৮, ২০১৭, ১২:৩২ পূর্বাহ্ণ

নাটোর অফিস


নাটোরে সিআইডির পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করার অভিযোগে রেজাউল করিম মিন্টু নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে শহরের উত্তর পটুয়াপাড়ার ঝাউতলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত মিন্টু সাপ্তাহিক গনজীবন পত্রিকার সাংবাদিক এবং বড়াইগ্রাম উপজেলার জুয়ারী সরদারপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীরের ছেলে।
মামলার বাদী বজলুর রহমান জানান, প্রায় দেড় বছর আগে সিআইডি পরিচয় দিয়ে মিন্টু আমার ঝাউতলা এলাকার (২য় তলা) বাসার নীচতলা দুইটি রুম দুই হাজার দুইশ টাকায় ভাড়া নেয়। ভাড়া দেয়ার সময় বিভিন্ন টালবাহানা করে আসছিল মিন্টু। তিনি আরো জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে আমার স্কুল পড়–য়া ছেলে জাকির হোসেনকে সিংড়ার গুনাইখারা নিজ গ্রামের বাড়ি থেকে ভাড়া আদায়ের জন্য পাঠায়। এসময় মিন্টুকে ভাড়ার কথা বললে মিন্টু আমার ছেলেকে মারপিট করে একটি কক্ষে আটক করে রেখে আমার কাছে এক লাখ টাকা দাবি করে। পরে নাটোর সদর থানা পুলিশের সহায়তায় ছেলেকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করি।
এ বিষয়ে নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমান জানান, রেজাউল করিম মিন্টু নিজেকে কখনো মাদকদ্রব্যের অফিসার, কখনো র‌্যাব অফিসার, কখনো ডিবি পুলিশ, কখনো সিআইডির পরিচয় দিয়ে নাটোর জেলার বিভিন্ন স্থানে চাঁদাবাজি করে বেড়ায়। গত বৃহস্পতিবার সিআইডির পরিচয় দিয়ে নাটোর পৌর এলাকার উত্তর পটুয়াপাড়ার ঝাউতলার আবদুুর রহমানের বাসায় চাঁদাবাজি করার সময় নাটোর সদর থানার পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। ওই রাতেই তার বিরুদ্ধে নাটোর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।