নাটোরে সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের || খালেদা জিয়ার মামলায় সরকার হস্তক্ষেপ করছে না

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৭, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

নাটোর অফিস



বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানোর বিষয়ে সরকার হস্তক্ষেপ করছে না। আওয়ামী লীগের দুই সাংসদও সাজা ভোগ করেছেন। সরকার তাদের বিষয়ে কোনো হস্তক্ষেপ করে নি। খালেদা জিয়ার মামলাতেও সরকার কোনো হস্তক্ষেপ করছে না। আইন তার নিজস্ব গতিতেই চলবে। এটাকে পূঁজি করে বিএনপি আন্দোলন করার চেষ্টা করলে বিএনপিকে প্রতিহত করা হবে।
গতকাল শনিবার বিকেলে নাটোর পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী আরো বলেন, বক্তৃতায় বিশেষণ দিয়ে নেতাদের মন জয় করার দরকার নেই, কাজ করে জনগণের মন জয় করার চেষ্টা করুন। ব্যানার ফেস্টুনে নাম লিখে ছবি লাগিয়ে লাভ নেই, জনগণের হৃদয়ে নাম লেখান। বিএনপি নিয়ে কথা না বলাই ভালো, দেখতে দেখতে ৮ বছর চলে গেলো আন্দোলনের নাম নেই। তারা ঘরে বসে যতো কথাই বলেন, মরা গাঙে জোয়ার আসবে না। আন্দোলন না করে নির্বাচনে না এসে বোমাবাজী করে নির্বাচন ঠেকানোর চেষ্টা করবেন না, জনগণই আপনাদের ঠেকাবে। খালেদার বিচার আদালতের আইন অনুযায়ী হবে।
বক্তব্যের শুরুতে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশে আজ বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হয়েছে। ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১২ কোটি মানুষের হাতে মোবাইল ও ৬ কোটি মানুষের কাছে ইন্টারনেট। এখন দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে বিশ্বের যে কোন দেশে কথা বলা যায়। বাংলাদেশের বর্তমান জিডিপি ৭ দশমিক এক আর পাকিস্তানের জিডিপি সেখানে ৪ দশমিক তিন, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বিস্ময়।
সড়ক বন্ধ করে পথসভা করার বিষয়ে তিনি বলেন, সড়ক বন্ধ করে কোন সভা সমাবেশ নয়। আমরা রাজনীতি করি জনগণের জন্য। তাই জনগণের অসুবিধা করে কোন কর্মসূচি নয়। একজন রোগি বা মানুষ দুর্ভোগের শিকার হয়ে ক্ষতির সম্মুখিন হলে তার দায় কে নেবে?
সড়ক ও সেতুমন্ত্রী বিএনপিকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, এই বছর না ওই বছর আন্দোলন হবে কোন বছর। যাদের মিছিল করার সাহস নাই, তারা আবার আন্দোলন করবে। এরা অন্ধকারে ঢিল মারতে জানে। আর একটা জিনিস করতে পারে বোমা মেরে মানুষ হত্যা করতে।
জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম আসনের সাংসদ অধ্যাপক আবদুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কার্যকরী সংসদের যুগ্মসম্পাদক সাংসদ জাহাঙ্গীর কবীর নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংসদ খালেদ মাহমুদ চৌধুরী, প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, সাংসদ শফিকুল আলম শিমুল, লালপুর বাগাতিপাড়ার সাংসদ অ্যাড. আবুল কালাম আজাদ, রাজশাহীর পবা-তানোর আসনের সাংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন, নওগার আত্রাই-রানীনগর সাংসদ সদস্য ইসরাফিল  আলম, পাবনা ও সিরাজগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের সাংসদ সেলিনা পারভীন,  জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাজেদুর রহমান খান ও নাটোর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজানসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।