নাটোর পৌর সভার মধ্যে সংঘর্ষ ও হত্যাকান্ডের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের

আপডেট: এপ্রিল ১৭, ২০২৪, ১০:০৬ অপরাহ্ণ

নাটোর প্রতিনিধি:


নাটোর পৌর সভার ৯৮ লক্ষ টাকার ব্যয়ে ড্রেনেজ নির্মাণের কাজের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দু-গ্রুপের সংঘর্ষ ও হত্যাকান্ডের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহত শিশিরের বাবা মোজাহার হোসেন মোনা বাদী হয়ে যুবলীগ নেতা হাসানুর রহমান হাসুসহ তিনজন কে নামীও অজ্ঞাত আরো ৩-৪ জনকে আসামী করে গত মঙ্গলবার রাতে নাটোর থানায় হত্যা মামলাটি দায়ের করেন।

অপরদিকে ঘটনার সময় সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা হাসানুর রহমান হাসু আহত হওয়ায় ওই ঘটনায় তার স্ত্রী সালমা খাতুন বাদী হয়ে বুধবার সকালে নাটোর পৌরনভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রোকনুজ্জামান হিরোসহ দুজন নামীও এবং অজ্ঞাত ৩-৪জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। উভয় মামলায় প্রধান আসমিকে গ্রেফতার করে বুধবার দুপুরে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়। নাটোর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মো. মিজানুর রহমান এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নাটোর পৌরসভার মেয়র এবং স্থানীয়রা বলেন, উল্লেখ্য নাটোর পৌরসভার ৯৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ড্রেনেজ নির্মাণ কাজের টাকা ভাগ-ভাগি নিয়ে পৌর কাউন্সিলর রোকনুজ্জামান হিরো এবং যুবলীগ নেতা হাসানুর রহমান হাসুর মাঝে বিরোধ চলে আসছিল। গত মঙ্গলবার পৌর মেয়রের সম্মেলন কক্ষে এ বিষয়ে বিরোধ নিষ্কৃতির জন্য একটি সালিশি বৈঠক বসে। এরই মধ্যে কাউন্সিলর হিরো ও হাসু উভয়পক্ষ পৌরসভা চত্বরে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় উভয় পক্ষের কজন আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত হয় শিশির নামে এক যুবক। তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। নিহত শিশিরের বাড়ি পৌরসভা এলাকার মল্লিকাটি মহল্লায়। সে ওই এলাকার মোজাহার হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ দুজনকে আটক করেছে।