নাটোর স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন কমিটি বাতিলের দাবি

আপডেট: জুলাই ২৪, ২০২১, ৭:৫৯ অপরাহ্ণ

নাটোর প্রতিনিধি:


সদ্য ঘোষিত নাটোর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন কমিটিকে অগণতান্ত্রিক উপায়ে গঠিত কমিটি দাবি করে তা বাতিলের আহ্বান জানিয়েছে বিলুপ্ত আহ্বায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দ। তাদের মতে, সংগঠনটির কেন্দ্রিয় নেতাদের প্রভাবিত করে নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে।
শনিবার (২৪ জুলাই) দুপুরে জেলা আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এসব দাবি জানান বিলুপ্ত কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আরিফ সরকার ও যুগ্ম আহ্বায়ক আহমেদ সেলিম। নতুন কমিটির ছয় জন সহ-সভাপতি সংবাদ সম্মেলনে অংশ নিয়ে অনাস্থা জানান।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক দিলীপ কুমার দাস, জেলা যুবলীগ সভাপতি বাসিরুর রহমান খান চৌধুরী এহিয়া, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি মোস্তারুল ইসলাম আলমসহ বিভিন্ন উপজেলা ও পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতৃবৃন্দ।
লিখিত বক্তব্যে তারা দাবি করেন, গত ১৯ জুলাই রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন কমিটির তালিকা প্রকাশিত হতে দেখা যায়। এই তালিকায় সভাপতি পদে চিহ্নিত রাজাকার সোনা মিয়ার ছেলে নাটোর পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইশতিয়াক আহমেদ ডলার ও সাধারণ সম্পাদক পদে জেলা পরিষদ সদস্য শফিউল আযম স্বপনের নাম দেখা যায়। এছাড়া কমিটিতে অন্য যাদের রাখা হয়েছে তারা অতীতে দলের কোনোি কর্মসূচীতেও অংশগ্রহণ করেন নি। তবুও কেন্দ্রিয় নেতৃবৃন্দ তাদের দ্বারা গঠিত কমিটিই অনুমোদন করেছেন। তাদের ভুল তথ্য দিয়ে স্বাধীনতা বিরোধীদের দ্বারা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কমিটি করা হয়েছে।
লিখিত বক্তব্যের বাইরে বিলুপ্ত কমিটির আহ্বায়ক আরিফুল ইসলাম সরকার বলেন, দলে ভেতরের একটি তৎপর গোষ্ঠী নিজেদের স্বার্থে ত্যাগী নেতাকর্মীদের পিছিয়ে দিচ্ছে। এতে করে প্রকারান্তরে তারা বিএনপি জামাতকে সুযোগ করে দিচ্ছে।
এ ব্যাপারে নতুন কমিটির সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ ডলার বলেন, পদ-পদবি না পেয়ে বিলুপ্ত কমিটির কেউ কেউ কেন্দ্র অনুমোদিত কমিটির বিরোধিতা করছেন। আমি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলাম, এন এস সরকারি কলেজের ভিপি ছিলাম এবং বর্তমানে পৌর কাউন্সিলর। আমি রাজাকারের সন্তান হলে এটা সম্ভব ছিলো না। নতুন কমিটিকে তারা সহায়তা করলে আমরা আরো এগিয়ে যাবো।