নানা আয়োজনে নবীনদের বরণ করলো বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক


বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে শিক্ষক শিক্ষার্থীরা সোনার দেশ

জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে উত্তরবঙ্গের অন্যতম বিদ্যাপীঠ বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিয়েছে। সোমবার সকাল ১০ টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) কাজী নজরুল ইসলাম মিলনাতয়নে নবীনবরণ অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন করেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. এম সাইদুর রহমান।
এসময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে ¯িপ্রং, ফল ও সামার সেমিস্টারের প্রায় ২ হাজার নবীণ শিক্ষার্থীকে বরণ করে নেয়া হয়।
অধ্যাপক সাইদুর রহমান খান বলেন, আমরা পঞ্চম ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল রেভুলেশনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। এ ধারার সঙ্গে যারা এডজাস্ট হতে পারবে না তারা দেশের চাহিদাও মেটাতে পারবে না। এজন্য আমাদের প্রস্তুত হতে হবে। এদেশ তোমাদের দিকে তাকিয়ে আছে। তোমাদের কাছে অনুরোধ, নেশা থেকে দূরে থাকতে হবে। সেই সাথে বন্ধু নির্বাচনে সতর্ক হতে হবে। তাহলেই তোমরা এগিয়ে যেতে পারবে।
নবীনদের উদ্দেশে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম ওসমান গণি তালুকদার বলেন, সফলতা মেধা নয় চেষ্টার উপর নির্ভরশীল। কঠোর পরিশ্রম মেধাকে অতিক্রম করবে যদি মেধা কঠোর পরিশ্রম না করে। কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমেই জীবনে সফলতা পাওয়া যায়। তোমরা কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে সামনে এগিয়ে যাবে। পাশাপাশি নৈতিকতা ও মূল্যোবোধের চর্চা করবে। আশা করি, আগামীতে তোমরা এ ধারা অব্যাহত রাখবে।
কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রভাষক সুমাইয়া রহমান অন্তরা ও পাবলিক হেল্থ বিভাগের ডা. আব্দুল আউয়ালের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ট্রাস্টের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান বলেন, এখন থেকে নিজেদের সিদ্ধান্ত তোমাদের নিজেদেরকে নিতে হবে। জীবনে অনেক প্রলোভন আসবে। কিন্তু নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। আমাদের নিজেদের ক্যাম্পাস নির্মাণের কাজ চলছে। তোমরা লেখাপড়া করে নিজেকে গড়ার মাধ্যমে সমাজ ও দেশের জন্য কাজ করবে।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, রাবি উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও চৌধুরী মো. জাকারিয়াসহ দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।
দুপুরের পর অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে মিলনাতয়নে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ