নারীদের স্বাধীনভাবে বাঁচার সুযোগ দিতে হবে : রেণী ।। নগরীতে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত

আপডেট: মার্চ ৯, ২০১৭, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



নগরীতে ‘নারী-পুরুষের সমতায় উন্নয়নের-যাত্রা বদলে যাবে বিশ্ব, কর্মে নতুন মাত্রা’ প্রতিপাদ্যে বিশ্ব নারী দিবসের আলোচনা সভায় নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সমাজসেবী শাহীন আক্তার রেণী বলেছেন, পৃথিবীতে নারীদের বৈষম্যমুক্ত ও স্বাধীনভাবে বেঁচে থাকার সুযোগ দিতে হবে। দেশে কর্মক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। সবকিছুতে নারী ও মেয়েদের সঙ্গে সম্মানজনক আচরণ করতে হবে। এতে নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা পাচ্ছে। এখন স্বালম্বী হতে নারীদের চ্যাঞ্জেলের মুখে পড়তে হচ্ছে না। কর্মক্ষেত্রে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের অংশগ্রহণ সমান হওয়া প্রয়োজন। নারী দিবস সমাাজের নারীদের অগ্রগতির নির্দেশ করে। প্রধানমন্ত্রীর নিরলস পরিশ্রমে নারী অধিকার প্রতিষ্ঠা ফিরছে।
গতকাল বুধবার বিকেল ৪টায় নগরীর সুজাউদ্দৌলা কলেজ প্রাঙ্গণে উদয়ন কুটির শিল্প প্রতিষ্ঠানের (ইউকেএসপি) উদ্যোগে এবং একশন এইড বাংলাদেশের (বিএফআই) অর্থায়নে ‘সি ক্যান চেঞ্জ’ প্রকল্পের নারী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
রেণী বলেন, উদয়ন কুটির শিল্পসহ আরো সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সহযোগিতা করছে নারীদের উন্নয়ন ও আত্মকর্মসংস্থানের জন্য। কর্মক্ষেত্রে নারীদের শ্রম, নায্য মজুরি ও সুস্থ কর্ম পরিবেশের অধিকারের রক্ষায় সবাইকে সহযোগিতা করতে হবে। এছাড়া তিনি ইয়ুথ মেয়েদের সেলাই প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্ব দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান।
উদয়ন কুটির শিল্প প্রতিষ্ঠান রাজশাহীর নির্বাহী পরিচালক হাসিবা খাতুন জাহেদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, সুজাউদ্দৌলা কলেজের অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান মানজাল, মহিলা বিষয়ক অধিদফতর রাজশাহীর প্রোগ্রাম অফিসার সালমা পারভীন, যুব উন্নয়ন অধিদফতর রাজশাহীর ক্রেডিট সুপার ভাইজার মো. সরওয়ারদ্দিন, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহমেদ, সমাজসেবক আখতারুজ্জামান বাবলু। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, ইয়ুথ গ্রুপ সদস্য (ইউকেএসপি) পলি। এছাড়া বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে নগরীতে নারী দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে।
জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদফতর : এ উপলক্ষে সাংসদ বেগম আখতার জাহান বলেন, পুরুষদের সাথে তাল মিলিয়ে নারীরাও দেশের উন্নয়নে সমান তালে কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী একজন নারী। তিনি সর্বক্ষণীক নারীদের নিয়ে চিন্তা করেন। নারীদের উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছেন। বাস্তবায়িত হচ্ছে কর্মকাণ্ড। আজ দেশে নারী পুরুষের কোন ভেদাভেদ নেই।
৮ই মার্চ আর্ন্তজাতিক নারী দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এবং মানব সম্পদ উন্নয়ন প্রশিক্ষন কেন্দ্রের আয়োজনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে নগরীর সুপরাস্থ মানব সম্পদ মিলনায়তনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ বেগম আখতার জাহান এসব কথা বলেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রায়হান পারভেজের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, জাতীয় মহিলা সংস্থার জেলা শাখার চেয়রম্যান মর্জিনা বেগম, কৃষি বিপনন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সৈয়দ জেবিন নেসা। স্বাগত বক্তব্য দেন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহানাজ বেগম। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।
টিআইবি : রাজশাহী মহিলা কলেজ রাজশাহীর উদ্যোগে এবং ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) রাজশাহী মহানগরের সহায়তায় গতকাল বুধবার কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবস’ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের নারী দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরেন এবং আন্তর্জাতিক নারী দিবসের ধারণাপত্র পাঠ করেন, সনাক সদস্য কল্পনা রায় ভৌমিক।
তিনি বলেন, নারীদের এখন আর ঘর সাজানো বা রান্না করার কাজের মধ্যেই জীবন সীমাবদ্ধ নয়। তারা এখন সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে জাতির উন্নয়নে কাজ করছেন। তাই নারীদের উচিত নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসা। সমাজ তথা রাষ্ট্র পরিবর্তনে ভূমিকা রাখা।
সভায় বক্তব্যে সনাকের সহসভাপতি জায়তুনা খাতুন বলেন, আমাদের সময়ে নারী মানেই কারো কন্যা, নারী মানেই কারো বউ এবং নারী মানেই কারো মা। এখন পট পরিবর্তন হয়েছে। এখন নারীরা শুধু কন্যা, বউ বা মা না। তারা এখন সমাজ পরিবর্তনের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন।
আলোচনা সভায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে থেকে বক্তব্য দেন, ববি চৌধুরী। তিনি বলেন, আমাদের সকলের উচিত আগে আমরা নারী, আমরা পুরুষ, এই মতের পরিবর্তে আমরা মানুষ এই মতে বিশ^াসী হতে। তবেই নারীদের উন্নয়ন সম্ভব। নারী উন্নয়নের জন্য শিক্ষার বিকল্প নেই।
আরেক শিক্ষার্থী মাসুদা খাতুন বলেন, নারী এখন উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করে আমাদের দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সফলতার সাথে তাদের দায়িত্ব পালন করছেন। আমাদের দেশের রাষ্ট্র প্রধান একজন নারী এবং আমাদের দেশ এখন ভালোই চলছে।
অনুষ্ঠানে সনাক সদস্য ও দৈনিক সোনার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, শিক্ষার্থীরা পারে দেশ গঠন ও পরিচালনা করতে। কারণ শুধুমাত্র নারীরাই নিজের সত্ত্বার মধ্যে আরেক সত্ত্বাকে ধারণ বা লালন করেতে পারে। পৃথিবীতে নারী জাতি ছাড়া আরো কোন জাতির এই ক্ষমতা নেই। এরপর আকবারুল হাসান মিল্লাত শিক্ষার্থীদের টিআইবি’র দুর্নীতিবিরোধী শপথ পাঠ করেন।
সনাক সভাপতি প্রফেসর আবদুস সালাম বক্তব্যে বলেন, পুরুষতন্ত্রের কারণেই নারীরা সমাজে তাদের অবস্থান নিশ্চিত করতে পারছে না। পৃথিবীর কোন ধর্মই নারী দ্বারা প্রবর্তন হয়নি। যে দেশগুলো উন্নত দেখা যায় সেই দেশগুলো পুরুষতন্ত্র শিথিল করে নারীদের এগিয়ে আসার সুযোগ করে দিয়েছে। নারীদের শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সমান সুযোগ দেওয়া হলেই নারী দিবস সফল হবে। সবশেষে তিনি বলেন আমরা নারী আমরা পুরুষ সর্বপরি আমরা মানুষ। এই বলে সভাপতি সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
রাবিতে নারী দিবস পালিত : নারী ও পুরুষের কাজের মধ্যে কোনো বিভেদ থাকা উচিৎ নয় বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আবদুল আলীম। গতকাল বুধবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ইসমাঈল হোসেন সিরাজী ভবনের সামনে ‘বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ’ আয়োজিত সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি।
‘অর্থনীতিতে নারী-পুরুষের সমান অধিকার, ৫০:৫০ বিশ্ব গড়ার অঙ্গিকার’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে এ সমাবেশের আয়োজন করে ‘বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ’ রাবি শাখা।
সমাবেশে আবদুল আলীম বলেন, ‘চতুর্থ শ্রেণির পাঠ্যবইয়ে নারী-পুরুষের কাজ আলাদা আলাদা করে দেওয়া হয়েছে। বইটিতে নারী ও পুরুষের কাজ আলাদা আলাদা করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এই রকম সিলেবাস কারিকুলাম থাকা উচিৎ নয়। এটাও নারী ও পুরুষের মাঝে বিভেদ সৃষ্টি করেছে।’
সমাবেশে রাবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শাহ্ আজম বলেন, বাংলাদেশে নারী-পুরুষ সমঅধিকার নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে সব চেয়ে বড় বাধা হলো তাদের অর্থনৈতিক মুক্তি। আর এই জায়গায় নারীদের এগিয়ে আনতে না পারলে বাংলাদেশে নারী-পুরুষের সম অধিকার নিশ্চিত করা সম্ভব নয়।
সমাবেশ থেকে নারীর সমঅধিকার, সমাজের মানসিকতার পরিবর্তন ও সিডও আইনের ২ নম্বর ও ১৬ নম্বর ধারার সংরক্ষন প্রত্যাহারের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয় ।
বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. মাহবুবা কানিজ কেয়ার সঞ্চালনায় সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সহসম্পাদক অধ্যাপক মোর্বারা সিদ্দিকা, ড. শাহরিয়ার পারভেজ, জনাব কামরুন রহমান, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের হাসান ইমাম সুইট, স্বপ্নের সহসভাপতি ও মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী জলিল হাসান, মহিলা পরিষদের তৃণমূল সংগঠনের ছোট বনগ্রামের সভাপতি চম্পা খাতুন প্রমুখ।
সূর্যের হাসি ক্লিনিক (কয়েরদাড়া) : দিবসটি উপলক্ষে সূর্যের হাসি ক্লিনিক কয়েরদাড়া শাখা আলোচনা সভার আয়োজন করে। গতকাল বুধবার বিকেলে তাদের কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন, ক্লিনিক ম্যানেজার সাজ্জাদ হোসেন। প্রধান অতিতি ছিলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ৬ নম্বর জোনের সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মমতাজ মহল। বক্তব্য দেন, প্যারামেডিক আলিয়া নূর। এসময় এলাকার নারীরা উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে তাদেরকে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করা হয়।
বাংলাদেশ গার্ল গাইডস্ অ্যাসোসিয়েশন : দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ গার্ল গাইডস্ অ্যাসেসিয়েশন রাজশাহী অঞ্চল র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। গতকাল বুধবার নগরীর বিলসিমলাস্থ গাইড হাউস চত্বরে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন, অঞ্চলের আঞ্চলিক কমিশনার বেগম সিরাজুম মুনিরা। অলোচনায় অংশ নেন, মতিহার থানার স্থানীয় কমিশনার ফেরদৌস বানু চৌধুরী পারুল, বিনোদপুর ইসলামিয় কলেজের অধ্যাপক সাবরিণা শারমীন বনি, আঞ্চলিক ট্রেজারার দেওয়ান বোকেয়া বেগর, রেঞ্চার সুরাইয়া আকতার মিনি এবং আরিফা ইসলাম। সভার পূর্বে গাইড হাউস থেকে র‌্যালি বের করে।
এসবিএমএসএস: রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকায় কর্মরত একশনএইড বাংলাদেশের ‘বাংলাদেশ ফায়ারস্টার্টার ইনিশিয়েটিভ’ প্রকল্পের পাঁচটি সহযোগী সংস্থা স্বাস্থ্য শিক্ষা সেবা ফাউন্ডেশন, স্বেচ্ছাসেবী বহুমূখী মহিলা সমাজকল্যাণ সমিতি (এসবিএমএস), উদয়ন কুিটর শিল্প প্রতিষ্ঠান, মাসাউস এবং বরেন্দ্র উন্নয়ন প্রচেষ্টার সমন্বয়ে রাজশাহী সাহেব বাজার থেকে আলুপট্টি মোড় পর্যন্ত র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত র‌্যালিতে পাঁচটি সংস্থার কর্মী, নির্বাহী পরিচালক এবং পাঁচটি সংস্থার দায়িত্বপ্রাপ্ত একশনএইড বাংলাদেশের প্রতিনিধিসহ ইয়ুথগ্রপ থেকে প্রায় তিন শতাধিক যুব উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনাসভায় বক্তব্য দেন, একশনএইড প্রতিনিধি এজেডএম মৌসুম ইসলাম, আরকে দত্ত-নির্বাহী পরিচালক সংস্থা স্বাস্থ্য শিক্ষা সেবা ফাউন্ডেশন, স্বেচ্ছাসেবী বহুমূখী মহিলা সমাজকল্যাণ সমিতির নির্বাহী পরিচালক নূর-এ-জান্নাত, উদয়ন কুিটর শিল্প প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক হাসিবা খাতুন, মাসাউস নির্বাহী পরিচালক জাকারিয়াস ডুমরি এবং বরেন্দ্র উন্নয়ন প্রচেষ্টার নির্বাহী পরিচালক ফয়েজউল্লাহ চৌধুরী। প্রত্যেক সংস্থার ইয়ুথগ্রপ থেকে নারী দিবসে তাদের প্রত্যাশা জ্ঞাপন ও নারী উন্নয়ন নিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন, সৌমিক, সানজিদা, নাহিদা, লামিয়া, জান্নাতুন, হেলেনা আরও অনেকে।
অনুষ্ঠানের শেষে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের সাথে স্বেচ্ছাসেবী বহুমূখী মহিলা সমাজকল্যাণ সমিতি বাল্যবিবাহের বিরুদ্বে একটি গম্ভীরা নাটক এবং বিকেলে সংস্থা স্বাস্থ্য শিক্ষা সেবা ফাউন্ডেশন ( সেফ) ও উদয়ন কুিটর শিল্প প্রতিষ্ঠান সাংস্কৃতিক অনষ্ঠান ও আলোচনা সভা করেছে।
মহিলা পরিষদ: এ দিবসটি উপলক্ষে সকাল সাড়ে নয়টায় জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি কল্পনা রায় এর সভাপতিত্বে আলুপট্টিতে র‌্যালি ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির বিভাগীয় সমন্বয়কারী অ্যাডবোকেট দিলসেতারা চুনি, সার্ক পিপল্স লিংক ফোরামের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান খান, এসিডি প্রোগ্রাম ম্যানেজার রবিউলইসলাম, ব্লাস্ট প্রতিনিধি আমিনুল ইসলাম, মহিলা পরিষদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অঞ্জনা সরকার প্রমুখ।
লফস: এ দিবসটি উপলক্ষে উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) ও ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ যৌথ আয়োজনে নগরীতে র‌্যালি ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নারী দিবসের কর্মসূচীতে লফস এর নির্বাহী পরিচালক ও সাবেক মহিলা কমিশনার শাহনাজ পারভীন বক্তব্য দেন। তিনি রাজশাহী জেলার সংবাদ পত্রে প্রকাশিত নারী নির্যাতন তথ্য তুলে ধরেন। এসময় সংস্থার কর্মকর্তাসহ সেচ্ছাসেবী সদস্যরা উপস্থিত ছিলন।
কাঁকানহাট: এদিবসটি উপলক্ষে সিসিডিবি সিপিআরপি প্রকল্প কাঁকনহাট চাপাইনবাবগঞ্জের আয়োজনে গোদাগাড়ীর কাঁকনহাট দরগাপাড়া অপরুপা ফোরাম মাঠে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন, সিসিডিবির কর্মসুচি কর্মকর্তা রুবেন মধু। প্রধান অতিথি ছিলেন কাঁকনহাট পৌরসভা সংরক্ষিত মহিলা আসনের কাউন্সিলর ওয়াহিদা সুলতানা লাবনী। সভায় উপস্থিত ছিলেন, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আবদুল মান্নান, ক্বারী ইয়াসিন আলী, সিসিডিবির সমাজ সংগঠক জেমস লাভলু বাঁড়ৈ, গিরিশ চন্দ্র বর্মন ও দিপিকা মার্ডী।
সার্ক পিপলস লিংক ফোরাম: এদিবসটি উপলক্ষে সকালে নগরীর আলুপট্টি মোড় থেকে শোভাযাত্রা হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টে এসে শেষ হয়। পরে এখানে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন সার্ক পিপলস লিংক ফোরাম বিডি রাজশাহীর সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান আলম, সাধারণ সম্পাদক কল্পণা রায়, অধ্যাপিক নূরুন নাহার, তাহেরা খাতুন, সাঈদা সুলতানা লিসা, মোজাম্মেল হক, ইব্রাহিম হায়দার প্রমুখ।
পিএসটিসি : ‘নারী পুরুষ সমতায় উন্নয়নের যাত্রা/ বদলে যাবে বিশ্ব, কর্মে নতুন মাত্রা’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে গতকাল বুধবার বড়কুঠিপাড়া বড়বটতলা মাঠে পপুলেশন সার্ভিসেস অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টার (পিএসটিসি) কর্তৃক কিশোরীদের এক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। ‘অ্যাকশন এইড বাংলাদেশ’ এর সহযোগিতায় ‘শী ক্যান প্রকল্পে’র আওতায় ওই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে বডকুঠিপাড়া দল ও সিরোইল কলোনি দল। টুর্নামেন্টে ২১ রান ৬ ওভারে বড়কুঠিপাড়া দল বিজয়ী হয়েছে।
স্ব-উন্নয়ন রাজশাহীর সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান খানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) সংরক্ষিত আসন এর নারী কাউন্সিলর বিলকিস বানু। বিশেষ অতিথি ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের প্রাক্তন উপপরিচালক মোজাম্মেল হক, আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ার প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক ফারজানা রহমান এবং ইংল্যান্ড ও ইটালি থেকে আগত ফেলো ফিলিপ ও ক্যাডনাম।
নারীর প্রতি সহিংসতা সমাজকে পিছিয়ে দিচ্ছে। এই সহিংসতা কেবল ভুক্তভোগীর জন্যই নয়, সমাজের জন্যও ক্ষতিকর। তাই সমাজ ও জাতির শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে নারীকে সামনে এগিয়ে নিতে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে এমন ব্যতিক্রমি আয়োজনের প্রশংসা করে বক্তারা বলেন, সমাজ ও জাতিকে এগিয়ে নিতে নারীর ভূমিকা অপরিসীম তাই সমাজের সব ক্ষেত্রে নারীকে কাজের সুযোগ করে দিতে হবে এবং নারী বান্ধব কাজের পরিবেশ তৈরি করতে হবে। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, পিএসটিসির শীক্যান প্রকল্পের ক্যাম্পেইন অফিসার শামসুন নাহার মিনা।
এসিডি : দিবসটি উপলক্ষে নগরীতে দিনব্যাপী কর্মসূচী পালন করেছে অ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি। গতকাল বুধবার র‌্যালী, মানববন্ধন, সংহতি সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে তারা।
এসিডি’র প্রতিনিধি হাফিজ উদ্দীনের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের রাজশাহী জেলার সভাপতি কল্পনা রায়, অ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’র প্রোগ্রাম ম্যানেজার রবিউল ইসলাম, বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির রাজশাহীর বিভাগীয় সমন্বয়কারী দিল সেতারা চুনি, লফসের নির্বাহী পরিচালক সাহানাজ পারভীন, সার্ক পিপলস লিংক ফোরামের প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান খান, ব্লাষ্টের প্রতিনিধি আমিনুল ইসলাম, অধ্যাপক নুরুন নাহার প্রমূখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ